,

1643194343_thumbnail-(10)

দীর্ঘদিন পর প্রকাশ্যে এসে যা বললেন পপি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ চলচ্চিত্রের নন্দিত অভিনেত্রী সাদিকা পারভীন পপি। প্রায় দেড় বছর আড়ালে ছিলেন তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী এ তারকা। এ সময়ের মধ্যে বহুবার প্রকাশ হয়েছে তার বিয়ে ও মা হওয়ার গুঞ্জন। তবে কেউ জানতো না তার অবস্থান। অবশেষে আড়াল ভেঙে ফিরলেন এই অভিনেত্রী। দেখা দিলেন এক ভিডিও বার্তা দিয়ে।

ভিডিও বার্তায় তিনি জানান, শিল্পী সমিতির বিদায়ী কমিটির নেতৃত্ব কর্তৃক একাধিকবার অপমানিত হয়েছেন৷ এ কথা জানাতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে কাঁদতে দেখা যায় তাকে।

ভিডিওতে কাঁদতে কাঁদতে পপি বলেন, ‘ভেবেছিলাম আর কখনও ক্যামেরার সামনে আসব না। কিন্তু একজন শিল্পী হিসেবে নিজের কিছু দায়বদ্ধতা থেকে আজকে কিছু কথা না বললেই না। দীর্ঘ ২৬ বছর ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক সুনামের সাথে কাজ করার চেষ্টা করেছি… বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করার জন্য অনেক কাজ করেছি। তিন-তিন বার ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আজকে অনেক কষ্ট নিয়ে কথাগুলো বলা। আজ আমি কোথায়। আমি আছি। আমি আছি আপনাদের সকলের মাঝে। হয়তো ভাগ্যে থাকলে আবার ফিরব কাজে। তবে যে কথাটা বলতে চেয়েছিলাম, সেটি হচ্ছে, বর্তমান সমিতির একটি মাত্র ব্যক্তির কারণে। তার পলিটিক্স, তার নোংরামি এবং অনেক রকম অপকর্মে অসহযোগিতার কারণে আমাকে বার বার অপমানিত হতে হয়েছে। শুধু আমি না, আমাদের মতো রিয়াজ, ফেরদৌস, পূর্ণিমা, নিপুণ, আমাদের সকলকে ব্যবহার করে আমাদের কাঁধে বন্দুক রেখে যে এই চেয়ারটিতে বসেছে; সে বিভিন্ন রকম অপকর্ম করার চেষ্টা করেছে, যেখানে আমি সায় দিইনি বা আমরা সায় দিইনি।’

এসময় শিল্পী সমিতিকে নোংরা ব্যক্তিদের হাত থেকে উদ্ধার করার আহবান জানিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণ প্যানেলের জন্য ভোট চান পপি। তিনি বলেন, ‘সবার কাছে আমার অনুরোধ, আমরা যে ভুল করেছি আপনারা তা করবেন না। সঠিক মানুষকে ভোট দিন। আমরা পরিবর্তন চাই। চলচ্চিত্রকে বাঁচান। আমি আমার ভুলের জন্য অনুতপ্ত। আমাদের ভুলের কারণে মানুষ আজ বিপদগ্রস্ত। আপনারা সবাই কাঞ্চন, নিপুন, রিয়াজ ভাইদের একটাবার সুযোগ দিন। তারা অন্তত শিল্পীদের নিয়ে অসম্মানিত করবে না।’

পপি আরও বলেন, ‘এই নোংরামির কারণে আমি আমার মানসম্মান নিয়ে থাকার জন্য বা আমার জানের ভয় ছিল, সবকিছু মিলিয়ে আমি নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি চলচ্চিত্র থেকে।’ পপির প্রতিশ্রুতি, ‘যদি কখনও পরিবেশ ভালো হয়, এই নোংরা মানুষ বা মানুষগুলো সরে যায় ইন্ডাস্ট্রি থেকে, তখন আবার কাজ করব।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর