,

toma-20211230155840

দুজন আলোচনা করেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন: তমা মির্জা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী তমা মির্জা। পারিবারিক নাম ফারজানা ইয়াসমিন তমা। ২০১৯ সালে হুট করেই দিয়েছিলেন বিয়ের ঘোষণা। বরের নাম হিশাম চিশতী। তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত। কানাডায় থাকেন।

বিয়ের এক বছর শেষ হতেই দুজনের সম্পর্কে ফাটল ধরে। স্বামী-স্ত্রী একে অপরের বিরুদ্ধে আনেন অভিযোগ। ঝামেলা গড়ায় আদালত পর্যন্ত। তবে সংসার রক্ষা হলো না। গত সপ্তাহ থেকে শোনা যাচ্ছে সংসার ভাঙছে এই তারকার। অনেকদিন ধরেই স্বামীকে ছেড়ে তিনি আলাদা থাকছেন।

এদিকে হিশাম চিশতী আজ বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) নিশ্চিত করেন, গত সেপ্টেম্বরের ৭ তারিখ উকিলের মাধ্যমে তমাকে ডিভোর্স নোটিশ পাঠিয়েছেন তিনি। সেই নোটিশ  কাছে এসে পৌঁছেছে।

তবে নোটিশ পাওয়া কথা জানান নায়িকা তমা। তিনি  বলেন, ‘এ বিষয়টা আমার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়। এ নিয়ে কথা বলতে চাইনি। সত্যি কথা বলতে আমরা দুজন অনেক চেষ্টা করেছি একসঙ্গে থাকার। কিন্তু পেরে উঠিনি। তাই পারিবারিক জায়গা থেকে দুজনে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি আলাদা হওয়ার।

আমরা অফিসিয়ালি বিষয়টি জানাতে আরও সময় নিতে চেয়েছিলাম। যেহেতু সবাই জেনেছে তাই এ নিয়ে আর জল ঘোলা না হোক।’

‘বিচ্ছেদ হলেও আমরা নিজেদের মধ্যকার সম্পর্কটাকে সম্মানের জায়গা রাখবো’- যোগ করেন নায়িকা তমা।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে এমবি মানিক পরিচালিত ‘বলো না তুমি আমার’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে রুপালি পর্দায় অভিষেক ঘটে তমা মির্জার। ‘নদীজন’ ছবির পার্শ্ব-অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতে নেন তিনি। এরপর থেকে নিয়মিতই কাজ করে যাচ্ছেন তমা।

চলতি বছরে বেশ আলোচনায় এসেছেন রায়হান রাফি পরিচালিত ‘খাঁচার ভেতর অচিন পাখি’ ওয়েব ফিল্ম দিয়ে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর