,

1637654416_thumbnail-(4)

ইউটিউবে মুক্তি পাচ্ছে সিমলার ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সম্প্রতি দেশের সেন্সর বোর্ড সর্বসাধারণের জন্য প্রদর্শন নিষিদ্ধ করে ‘প্রেমকাহন’ সিনেমাটি। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা সিমলা অভিনীত সর্বশেষ এই সিনেমাটির নাম প্রথমে ছিল ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’। এরপর সেন্সর বোর্ডের আপত্তির কারণে নাম বদলে রাখা হয় ‘প্রেমকাহন’। কিন্তু তাতেও মেলেনি ছাড়পত্র। তাই প্রেক্ষাগৃহে নয়, ইউটিউবেই ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ নামে সিনেমাটিকে মুক্তি দিতে চলেছেন এর নির্মাতা রুবেল আনুশ।

সিনেমাটি গত ২৭ অক্টোবর সেন্সর বোর্ড সদস্যরা দেখে এবং ২ নভেম্বর নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত জানায় তারা। চিঠিতে তারা পাঁচটি কারণ উল্লেখ করেছিল। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে সিনেমাটির কাহিনি অসংলগ্ন ও সংলাপ অশ্লীল।  সেন্সর বোর্ড ৩০ দিনের মধ্যে তাদের আদেশের বিরুদ্ধে আপীল করার সুযোগ রেখেছে। যা এখনও শেষ হয়নি। তার আগেই ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ নামে সিনেমাটি ইউটিউবে মুক্তির ঘোষণা দিলেন পরিচালক রুবেল আনুশ।

পরিচালক রুবেল আনুশ বলেন, ‘আপিল করলেও ওই একই রকম ফলাফল আসত। দৃশ্য কাটতে হতো বা সংলাপ ফেলে দিতে হতো। আমি চাইনি সেগুলো করতে। কারণ এতে আমার সিনেমা আর সিনেমা থাকবে না।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমার জন্য অনেক বাজেটের সিনেমা এটি। এত টাকা তো আর ইউটিউব থেকে আসবে না। আমরা প্রফিট শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে সিনেমাটি এ প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দিচ্ছি।’

‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ সিনেমাটিতে সিমলার সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন ‘ঘেটুপুত্র কমলা’-খ্যাত অভিনেতা মামুন। সত্য ঘটনা অবলম্বনে ২০১৪ সালের আগস্টে ছবির শুটিং শুরু হয়। সিনেমায় ৩৮ বছর বয়সী সিমলার সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন ১৮ বছরের তরুণ মামুন। এতে আরও অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, রুমাই নোভিয়া, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিনসহ অনেকে। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে আনুশ ফিল্মস। সহ-প্রযোজক রেড পিকচার্স।
Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর