,

download

মুকুল সিরাজের এগিয়ে চলা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বহুমাত্রিক চরিত্রে অভিনয় করেন অভিনেতা মুকুল সিরাজ। ১৯৯৯ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি ‘নাট্যধারা’র হয়ে মঞ্চে অভিনয় করেছেন। মঞ্চে তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটক হচ্ছে- ‘চাঁদের অমাবস্যা’, ‘ঘরামি’, ‘অগ্নিজল’, ‘উই আর লুকিং ফর শত্রুজ’ ইত্যাদি। কিছুদিন আগে তিনি ‘থিয়েটার ফ্যাক্টরি’ নামের আরেকটি দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছেন। তবে এখনো এই দলের হয়ে নতুন কোনো নাটকে অভিনয় করেননি তিনি।

টেলিভিশনে মুকুল সিরাজ প্রথম অভিনয় করেন ২০০৮ সালে গাজী রাকায়েত পরিচালিত ‘রূপান্তর’ ধারাবাহিকে। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটকের মধ্যে রয়েছে- ‘ভালোবাসা কারে কয়’, ‘সুখ পাখি’, ‘তরিক আলী হাডারী’, ‘লং মার্চ’, ‘মহাগুরু’, ‘সিদুরের চুপকথার গল্প’ ইত্যাদি। মুকুল সিরাজ বর্তমানে ব্যস্ত আছেন কায়সার আহমেদ’র ‘গোলমাল’, ‘বকুলপুর’, ‘জাদুনগর’, বিপ্লব হায়দারের ‘সুখ পাখি, নিমা রহমানের ‘গুলশান এভিনিউ সিজন টু’ ধারাবাহিকে অভিনয়ের কাজ নিয়ে।

অভিনয় জীবনে পথচলা প্রসঙ্গে মুকুল সিরাজ বলেন, আমার প্রিয় অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি। তিনি আমার অভিনয়ের অনুপ্রেরণা। তবে আমি কখনই ভাবিনি যে আমি অভিনেতা হব। শখে অভিনয় করতে করতে পেশাদার একজন অভিনেতা হয়ে গেলাম। আমার পরিবারের মানুষের প্রতি, শিল্পী পরিবারের প্রতি, প্রযোজক, পরিচালক ও দর্শকের প্রতি আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ যে তারা আমাকে সহযোগিতা করছেন, আমার কাজকে ভালোবাসছেন।

এদিকে মুকুল সিরাজ অভিনীত মীর সাব্বির পরিচালিত ‘রাত জাগা ফুল’ সিনেমাটি এরইমধ্যে আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। এদিকে মুকুল সিরাজ একটি নতুন বিজ্ঞাপনেও মডেল হিসেবে কাজ করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর