,

image-85511-1633097009

চাঁদপুরে হচ্ছে প্রিয়া’রে ছবির শুটিং

হাওর বার্তা ডেস্কঃ  ভারত মহাদেশের ওপার বাংলার কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নায়িকা কৌশানি মুখার্জি চাঁদপুরের পল্লীর গ্রামে, বিভিন্ন চরাঞ্চলে ও বিভিন্ন ঘরোয়া পরিবেশে নিজের চরিত্রে প্রিয়া’রে ছবিতে শুটিং করে প্রিয়ার ভুমিকায় ফুটিয়ে তুলতে অভিনয় করে যাচ্ছেন বলে শাপলা মিডিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এ জন্যে তিনি গত মঙ্গলবার থেকে চাঁদপুরের পল্লীতে অবস্থান করছেন। আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত তিনি ও তার দল চাঁদপুরে অবস্থান করে বিভিন্ন উল্লেখ যোগ্য শুটিং স্পটে শুটিং করবেন বলে সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষ ও আইনশৃংখলা বাহিনী থেকে সত্যতা পেয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি বলেন,‘শুটিং শেষে আমি যেদিন কলকাতায় বাড়ি ফিরব, দুর্গোপুজোয় আমি বাড়ির সবাইকে চাঁদপুরের ইলিশ উপহার দেব। চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনার প্রচুর ইলিশ বাড়ি নিয়ে যাব। আর সেই ইলিশ মায়ের হাতে রান্না করে খাব।’ চাঁদপুরে ছবির শুটিং করতে এসে এসব কথা বলেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী কৌশানি মুখার্জি।

কৌশানি বলেন, ইলিশ প্রতিটা বাঙালির কাছেই জনপ্রিয়। বিশেষ করে ইলিশ, সরষে ইলিশ, ইলিশের ঝোল, ভাত, ডাল এসব বলতে গেলেই জ্বিভে জল এসে যায়। তবে ইলিশের কাঁটা নিয়ে খুব ভয় পাই। তবুও ইলিশ আর ইলিশের ডিম খেতে আমার দারুণ লাগে।

‘শুটিং শেষে আমি যেদিন কলকাতায় বাড়ি ফিরব, দুর্গোপুজোয় আমি বাড়ির সবাইকে চাঁদপুরের ইলিশ উপহার দেব। চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনার প্রচুর ইলিশ বাড়ি নিয়ে যাব। আর সেই ইলিশ মায়ের হাতে রান্না করে খাব।’ চাঁদপুরে ছবির শুটিং করতে এসে এসব কথা বলেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী কৌশানি মুখার্জি।

কৌশানি বলেন, ইলিশ প্রতিটা বাঙালির কাছেই জনপ্রিয়। বিশেষ করে ইলিশ, সরষে ইলিশ, ইলিশের ঝোল, ভাত, ডাল এসব বলতে গেলেই জ্বিভে জল এসে যায়। তবে ইলিশের কাঁটা নিয়ে খুব ভয় পাই। তবুও ইলিশ আর ইলিশের ডিম খেতে আমার দারুণ লাগে।

বাংলাদেশে এই প্রথম কোনো সিনেমায় কাজ করছেন জানিয়ে কৌশানি বলেন, বাংলাদেশে এটিই আমার প্রথম কোনো সিনেমায় কাজ করছি। এই সিনেমায় আমি ‘প্রিয়া’র চরিত্রে কাজ করছি। আর সিনেমার নাম ‘প্রিয়া রে’। এটা একটা রোমান্টিক আর কনটেন্টবেজড সিনেমা।

কৌশানি মুখার্জি বলেন, প্রিয়া’রে ছবিতে আমার অভিনয় হচ্ছে,আমি একজন ঘরোয়া মেয়ে। বাবা মায়ের একমাত্র মেয়ে। সেই আদর থেকেই প্রেমের অধ্যায়টা জীবনে শুরু হওয়া। আশা করছি এই সিনেমাটার মাধ্যমে বাংলাদেশের সকলের মন জয় করতে পারব বলে তিনি জানান।

প্রিয়া রে’ সিনেমা প্রসঙ্গে কৌশানির বিপরীতে কাজ করা এপার বাংলার চাঁদপুরের ছেলে নায়ক শান্ত খান বলেন, আমি একঘেয়ামি অভিনয় থেকে বেরিয়ে এসে কাহিনীর সাথে মিল রেখে বাস্তবতা নিয়ে প্রত্যেকটা চরিত্র করতে চাই। শুধু অ্যাকশন হিরোর রোল প্লে করব, এমনটাতে আমি সীমাবদ্ধ থাকতে চাই না।

নায়ক শান্ত খান আরও বলেন, শাপলা মিডিয়ার প্রযোজনায় আমি এই সিনেমায় রাখালের চরিত্রে অভিনয় করছি। খুবই ভালো গল্প। আমার চরিত্রের নাম ‘নূর’। কৌশানির সঙ্গে এটাই আমার প্রথম কাজ। যদিও এরপর ‘সোলজার’ নামের আরও ১টি ছবিতে আমরা দুজনে ভারতে অভিনয় করব।

‘প্রিয়া রে’- সিনেমায় গ্রামের নির্যাতিত গরিব অসহায়দের পক্ষ নিয়ে গ্রামের চেয়ারম্যান ও মাতব্বরদের বিরুদ্ধে আমি রুখে দাঁড়াতে নূর নামের চরিত্রে অভিনয় করছি। এই সিনেমায় সিবা শানু, রজতাব দত্ত রনি দাদাদের পেয়ে আমার কাজ করতে দারুণ ভাল লাগছে বলে শান্ত খান তার মন্তব্য প্রকাশ করেন।

সিনেমার পরিচালক পূজন মজুমদার বলেন, খুব ভালো মানের একটা গল্প। একটা রিভেঞ্চ নিয়ে গল্পটা সাজানো হয়েছে। আমরা চাঁদপুরের চর এবং বাসাবাড়ির কয়েকটা স্পট সিলেক্ট করে গ্রামীণ দৃশ্যগুলো ফুটিয়ে তুলছি। এরপর গানসহ অন্যান্য কাজ করবো।

এদিকে ওপার বাংলার হিরোইন কৌশানি মুখার্জি চাঁদপুরে এসে শুটিং করাটি বেশ উপভোগ করছেন স্থানীয় চাঁদপুর বাসী। কৌশানিকে একনজর দেখতে শত শত মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন চাঁদপুরের পল্লীতে।

সিনেমার প্রযোজক সেলিম খান বলেন, কৌশানি ঢাকা এসেই সরাসরি চাঁদপুর চলে এসেছেন। চাঁদপুরে ২৮ সেপ্টেম্বর শুটিং হয়েছে। এখন পুরোদমে কাজ চলবে। তার বিপরীতে রয়েছেন,চাঁদপুরের নায়ক শান্ত খান।

 

 

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর