,

download (3)

ওর ভেতর বোঝা মুশকিল, ঋতুপর্ণা প্রসঙ্গে খরাজ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ দুই বাংলায় সমান জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনয় দক্ষতার পাশাপাশি রূপে-গুণেও নিজেকে প্রতিনিয়ত ছাড়িয়ে গেছেন। টানা কয়েক দর্শক বিভিন্ন ছবিতে খরাজ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাকে পর্দা ভাগাভাগি করতে দেখা গেছে।

এবার তাদের দেখা যাবে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘বেলাশুরু’ ছবিতে। নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্য়ায় পরিচালিত নতুন এ ছবিতে দুলাভাই ও শ্যালিকা চরিত্রে ধরা দিয়েছেন খরাজ ও ঋতুপর্ণা। আগামী ২০ মে মুক্তি পাচ্ছে ‘বেলাশুরু’।

ক্যামেরার সামনে দীর্ঘদিন একসঙ্গে কাজ করা এ দুই অভিনয়শিল্পী পরস্পরের দারুণ ফ্যান। দুজনের বোঝাপড়াও চমৎকার। একে অপরকে চেনেনও ভালো।

তাইতো এবার ঋতুপর্ণা সম্পর্কে নিজের অভিব্যক্তি জানালেন খরাজ। নায়িকা সম্পর্কে তার ভাষ্য- ‘ও হল জিলিপি। না জিলিপি নয়, ও আরও প্যাঁচালো অমৃতি। কী যে প্ল্যানে চলে আর কী যে করবে বোঝা সম্ভব নয়। একটা কিছু চাওয়া হলো ওর থেকে যেটা পাওয়া মুশকিল, সেটা দেখা গেল এমন কিছু বিরাট ব্যাপারই নয়। আবার যে জিনিসটা খুব সহজে ওর থেকে পাওয়া যাবে বলে মনে হলো সেটা কিছুতেই পাওয়া যায় না। এরকম একটা মানুষ। কী যে আছে ভেতরে ওর বোঝা খুবই মুশকিল।

‘বেলাশুরু’ ছবিতে ঋতুপর্ণার দুলাভাই চরিত্রে থাকা খরাজ মিষ্টি খেতে খুব ভালোবাসেন। তাইতো তিনি সব অভিনেতাদেরই কোনো না কোনো মিষ্টির সঙ্গে তুলনা করেন। যেখানে ঋতুপর্ণা তার চোখে অমৃতি।

এছাড়া তার চোখে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় রাবড়ি, স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত পান্তুয়া, অপরাজিতা আঢ্য রসগোল্লা, নন্দিতা রায় গুড়, শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় জলভরা সন্দেশ, ইন্দ্রানী দত্ত চমচম, মনামী মিহিদানা, অনিন্দ্য পুরীর জিভে গজা, সুজয়প্রসাদ চট্টোপাধ্যায় কালাকাঁদ, শঙ্কর চক্রবর্তী মোরব্বা এবং প্রদীপ ভট্টাচার্য হলেন ছানাবড়া।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর