,

অভিনেত্রীদের ‘অনৈতিক’ প্রস্তাব, অভিযোগে জর্জরিত সাজিদ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ হিন্দি টেলিভিশনের জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো বিগ বসের ঘরে হাজির হয়েছেন বলিউডের বিতর্কিত পরিচালক সাজিদ খান। মি’টু কাণ্ডে নাম জড়ানোর পর সাজিদকে বিগ বস ১৬’তে সুযোগ দেওয়ায় প্রতিবাদ করেছেন বলিউডের বেশ কিছু অভিনেত্রী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ ঝড় ওঠেছে বিষয়টি নিয়ে। সাজিদের বিরুদ্ধে দীর্ঘ অভিযোগ, তিনি সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ দেওয়ার পরিবর্তে কুপ্রস্তাব দিতেন অভিনেত্রী ও মডেলদের।

 

মন্দানা করিমি থেকে সালোনি চোপড়া, অহনা কুমরার মতো বহু অভিনেত্রীদের নগ্ন হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন পরিচালক সাজিদ খান। এমনকি সাজিদের কুনজর পড়েছিল প্রয়াত অভিনেত্রী জিয়া খানের উপরেও।

 

এক সাক্ষাৎকারে সেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন প্রয়াত অভিনেত্রী জিয়া খানের বোন কারিশ্মা খান। স্ক্রিপ্ট পড়ার সময় জিয়াকে অন্তর্বাস খুলতে বলেছিলেন সাজিদ। এমনকি কারিশ্মার উপরেও সাজিদ মিথ্যা অভিযোগ এনেছিলেন যে, সাজিদের সঙ্গে নাকি যৌন মিলনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন কারিশ্মা!

kalerkanthoজিয়া খান

জিয়ার বোন কারিশ্মা সাজিদ খান প্রসঙ্গে বলেন, ‘তখন সিনেমার রিহার্সাল চলছিল। দিদি স্ক্রিপ্ট পড়ছিল। সেই সময় হঠাৎ করেই সাজিদ অন্তর্বাস খুলে ফেলতে বলেন। দিদি কিছুই বুঝে উঠতে পারেনি। বাড়ি এসে শুধু কাঁদত আর বলত যে সিনেমার শ্যুটিংই শুরু হল না তাঁর আগেই কত কিছু ঘটছে!’

শেষ পর্যন্ত বাধ্যতামূলকভাবে সাজিদ খানের সিনেমায় কাজ করেন জিয়া। সিনেমার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়ায় কাজ না করে অন্য কোনো উপায় ছিল না। অন্যথায় আইনি জটিলতায় জড়িয়ে যেতেন ‘গজনি’ খ্যাত অভিনেত্রী জিয়া খান। বিবিসি ডকুমেন্টারি ‘ডেথ ইন বলিউড’ সিনেমার কাজের সময়ই জিয়া খানের সঙ্গে এই ঘটনাটি ঘটেছিল।

পরিচালকের নামে অতীতেও একাধিক অভিযোগ ওঠেছিল। সাজিদের সহ পরিচালক সালোনি চোপড়া দাবি করেছিলেন যে এই ফিল্মমেকার তাঁকে কুপ্রস্তাব দিয়েছিলেন। জনপ্রিয় অভিনেত্রী রেচেল হোয়াইটও সালোনিকে সমর্থন করেছিলেন। তিনি দাবি করেন, সাজিদ খান তাঁকে নগ্ন হতে বলেছিলেন। এর বিনিময়ে ‘হামসাকাল’ ছবিতে কাজ দেওয়ার অফারও দিয়েছিলেন।

kalerkanthoসিমরণ সুরি

সিমরণ সুরির দাবি ছিল, সাজিদ খান তাঁকে ‘হিম্মতওয়ালা’ ছবিতে কাজের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। এর বিনিময়ে তাঁকেও নাকি নগ্ন হতে বলেছিলেন সাজিদ। এমনকি তাঁর পোশাক খোলার চেষ্টাও করেন।

kalerkanthoইরানি অভিনেত্রী মন্দানা করিমি

লেখিকা কারিশ্মা উপাধ্যায়ও সাজিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন। তাঁর দাবি ছিল, সাক্ষাৎকারের সময় সাজিদ খান নাকি তাঁকে নিজের গোপনাঙ্গ দেখিয়েছিলেন। জোর করে চুমু খাওয়ার অভিযোগও তোলেন কারিশ্মা। ইরানের কন্যা মন্দানা করিমিকেও নাকি ‘হামসাকাল’ সিনেমার অফার দিয়েছিলেন সাজিদ। এর পরিবর্তে তাঁকেও নাকি নগ্ন হতে বলেছিলেন পরিচালক।

বলিউডে মি’টু আন্দোলন শুরুর পর থেকে এই পরিচালকের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ উঠতে শুরু করে। স্বচ্ছ ইমেজে দাগ লাগায় স্বাভাবিকভাবেই কাজ হারাতে শুরু করেন পরিচালক। ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশন তাকে বহিস্কার পর্যন্ত করে। দীর্ঘদিন আড়ালে থেকে অবশেষে বিগ বসের ঘরে প্রবেশ করলেন বিতর্কিত সাজিদ খান।

সূত্র : এই সময়

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর