,

নেছারাবাদে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তা ঘাট

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে নেছারাবাদ উপজেলার নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে ভিবিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। তলিয়ে গেছে  ফসলের জমিসহ কয়েক শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়ীঘর। একই সাথে প্লাবিত হয়েছে উপজেলার ইউনিয়নের প্রধান প্রধান সড়ক সহ খোদ উপজেলার নেছারাবাদ পিরোজপুর সড়কও। এছাড়াও বন্যার পানিতে স্বরূপকাঠি পৌর শহরের অভ্যন্তরীন অনেকগুলো সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। পানি বন্দি হয়ে পড়েছে পৌরসভার চার থেকে সাড়ে চার হাজার বাসিন্দা। সন্ধ্যা ফেরিঘাটের দুই পাড়ে গ্যাং ওয়ে পানিতে ডুবে গেছে।
বিঘ্নিত হচ্ছে ফেরি চলাচল।  অপর দিকে শনিবার রাত থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থেমে থেমে মুসলধারে বৃষ্টির কারনে জনজীবন অতীষ্ট হয়ে পড়েছে। ঘর থেকে কাজে বের হতে পারেনি সাধারন মানুষ। হটাৎ পানি বৃদ্ধির কারনে উপজেলার অভ্যন্তরীন সব রাস্তার ওপর হাটু সমান পানিতে তলিয়ে গেছে। পানি। নিম্নাঞ্চলের অনেক বাড়ী ঘরে পানি ওঠে পড়েছে। উপজেলার সমেদয়কাঠি ইউনিয়নের মৈশানী এলাকার কৃষক ননী গোপাল সরকার জানান মৈশানী সরকারবাড়ী থেকে বয়লাকাঠি জাকির তালুকদারের বাড়ী  পর্যন্ত।
মৈশানী থেকে দুর্গাকাঠি পর্যন্ত সম্পূর্ন সড়ক এখন পানির নিচে। সমেদয়কাঠি ইউনিয়নের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রফিকুল ইসলাম নামে প্রধান শিক্ষক জানান, পানিতে তাদের বিদ্যালয়ের বারান্দা সহ ক্লাসের ফ্লোরে পানিতে ভরে গেছে। এতে বিগ্নিত হচ্ছে ক্লাস।
বলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আলাউদ্দিন জানান তার বাড়ীর উঠোনে হাটু পানি। ঘরের মধ্যে পানি প্রবেশ করতে আর ৩ /৪ ইঞ্চি বাকি আছে। অনেক ঘরবাড়ীতে পানি প্রবেশ করেছে। তিনি জানান এলাকার প্রায় সব ক্ষেত খামার তলিয়ে গেছে।
একই ইউনিয়নের চামী অঞ্চলের বীর মুৃক্তিযোদ্ধা মো. শাহেদ আলী জানান অতিরিক্ত পানির কারনে ভাসমান সবজি ক্ষেতে নতুন করে বাঁশ কুপতে হয়েছে।  চাষীদের বহু চারার ক্ষতি  হবে।
Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর