,

download (2)

আজ থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু, কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ঈদ যাত্রায় আজ শনিবার থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। তবে গতকাল শুক্রবার নিয়মিত অগ্রিম টিকিটের জন্য কমলাপুর রেলস্টেশনে ছিল উপচে পড়া ভিড়। নিয়ম অনুযায়ী গতকাল দেওয়া হয় আগামী ২৬ এপ্রিলের টিকিট। অনেকে অনলাইনে টিকিট না পেয়ে কাউন্টারে টিকিট কিনতে এসেছেন।

আবার নতুন পদ্ধতিতে অনলাইনে টিকিট কেনার পরও যাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) ফটোকপি কিংবা মূলকপি দেখিয়ে মূল টিকিট নিতে হবে।

এই কারণে অনেকে অনলাইনে টিকিট কেনার পরও মূল টিকিট নিতে কাউন্টারে এসেছেন। ফলে কমলাপুর রেলস্টেশনে গতকাল উপচে পড়া ভিড় ছিল। তবে আজ সব চাপ কমলাপুরে পড়বে না। কমলাপুরসহ রাজধানীর আরো চার স্টেশনে ঈদ যাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রি হবে।

এর মধ্যে শুধু ঈদের জন্য ফুলবাড়িয়া ও তেজগাঁওয়ে খোলা হয়েছে নতুন টিকিট কাউন্টার। বাকি দুই স্টেশন হলো বিমানবন্দর ও বনানী।

আগের দিনেই ভিড়

কমলাপুর রেলস্টেশনে গতকাল সকালেই যাত্রীদের ভিড় জমে যায়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এ ভিড় আরো বাড়তে থাকে। গত তিন-চার দিন ধরেই কমলাপুর রেলস্টেশনে অগ্রিম টিকিট কাটতে যাত্রীরা সকাল থেকে ভিড় করছেন।

জানতে চাইলে স্টেশন ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার  বলেন, ‘কয়েক দিন ধরেই স্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের চাপ রয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে কাউন্টারে টিকিট তৈরি করতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না। তবে যেসব যাত্রী আগামী ২৬ এপ্রিল বা তার আগে যেতে চান, তাঁরাই মূলত আজকে (গতকাল) টিকিট কাটতে এসেছেন। যতক্ষণ টিকিট থাকবে ততক্ষণ যাত্রীরা টিকিট পাবেন। কাউন্টারের পাশাপাশি অনলাইনেও টিকিট দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে অনলাইনে কারো টিকিট কাটতে সমস্যা হচ্ছে না। ৩০ সেকেন্ডে ২৬ হাজার মানুষ একসঙ্গে টিকিট নিতে পারেন। ’ সহজ ডটকমের ব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) ফারহাত আহমেদ বলেন, ‘ঈদের জন্য আমাদের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সব স্টেশনে ইন্টারনেট সংযোগ শক্তিশালী করা হয়েছে। ’

সব টিকিট কমলাপুরে নয়

বিশেষ ব্যবস্থাপনায় রাজধানীর পাঁচটি স্টেশন থেকে টিকিট বিক্রি করা হবে। কমলাপুর স্টেশনে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চল ও খুলনাগামী ট্রেনের টিকিট, বিমানবন্দর স্টেশনে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হবে। তেজগাঁও স্টেশনে ময়মনসিংহ, জামালপুরগামী, দেওয়ানগঞ্জ স্পেশালসহ সব আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট, ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে (বনানী) মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেস ট্রেনের এবং ফুলবাড়িয়া পুরনো রেলস্টেশন থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হবে।

কোন দিন কোন টিকিট

ঈদ যাত্রার টিকিট ২৩ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৭ এপ্রিলের অগ্রিম টিকিট। ২৪ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৮ এপ্রিলের, ২৫ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৯ এপ্রিলের, ২৬ এপ্রিল দেওয়া হবে ৩০ এপ্রিলের, ২৭ এপ্রিল দেওয়া হবে ১ মের অগ্রিম টিকিট। ১ মে দেওয়া হবে ৫ মের টিকিট, ২ মে দেওয়া হবে ৬ মের, ৩ মে দেওয়া হবে ৭ মের এবং ৪ মে দেওয়া হবে ৮ মের অগ্রিম টিকিট।

ছয় ঘণ্টায় ৫০ হাজার টিকিট বিক্রি

রেলওয়ের টিকিট বিক্রির ব্যবস্থাপনার নতুন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সহজ ডটকম থেকে জানানো হয়, গতকাল সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ৫০ হাজারের মতো টিকিট বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ২০ হাজারের মতো টিকিট। বাকি ৩০ হাজার টিকিট বিক্রি হয়েছে দেশের ৭৭টি রেলস্টেশনের কাউন্টারে।

ঈদে চলবে ছয় জোড়া বিশেষ রেল

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো যাত্রীদের ভ্রমণের সুবিধার্থে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে। সেগুলো হলো চাঁদপুর স্পেশাল-১, চাঁদপুর স্পেশাল-২, দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল, খুলনা স্পেশাল, শোলাকিয়া স্পেশাল-১ ও শোলাকিয়া স্পেশাল-২।

যা কিছু মনে রাখতে হবে

রেলের টিকিট কিনতে দেখাতে হবে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি)। যাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাঁরা জন্ম নিবন্ধন সনদ এবং শিক্ষার্থীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট কিনতে পারবেন। তবে শুধু ঈদকেন্দ্রিক নয়। এখন থেকে ট্রেনের টিকিট কিনতে পরিচয়পত্র দেখানোর নিয়ম ফিরিয়ে এনেছে রেল কর্তৃপক্ষ।

‘টিকিট যার ভ্রমণ তার’ এই স্লোগানে যাত্রীদের এনআইডি/জন্ম সনদ ফটোকপি কাউন্টারে দেখিয়ে টিকিট কেনা যাবে। একজনকে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট দেওয়া হবে। ঈদের অগ্রিম টিকিট ফেরত নেওয়া হবে না। এবার প্রথমবারের মতো প্রতিটি আন্ত নগর ট্রেনে শুধু নারী ও প্রতিবন্ধী যাত্রীদের জন্য একটি করে আলাদা কোচ সংযোজন করা হবে।

 

ঈদ যাত্রায় আজ শনিবার থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। তবে গতকাল শুক্রবার নিয়মিত অগ্রিম টিকিটের জন্য কমলাপুর রেলস্টেশনে ছিল উপচে পড়া ভিড়। নিয়ম অনুযায়ী গতকাল দেওয়া হয় আগামী ২৬ এপ্রিলের টিকিট। অনেকে অনলাইনে টিকিট না পেয়ে কাউন্টারে টিকিট কিনতে এসেছেন।

 আবার নতুন পদ্ধতিতে অনলাইনে টিকিট কেনার পরও যাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) ফটোকপি কিংবা মূলকপি দেখিয়ে মূল টিকিট নিতে হবে।

এই কারণে অনেকে অনলাইনে টিকিট কেনার পরও মূল টিকিট নিতে কাউন্টারে এসেছেন। ফলে কমলাপুর রেলস্টেশনে গতকাল উপচে পড়া ভিড় ছিল। তবে আজ সব চাপ কমলাপুরে পড়বে না। কমলাপুরসহ রাজধানীর আরো চার স্টেশনে ঈদ যাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রি হবে।

এর মধ্যে শুধু ঈদের জন্য ফুলবাড়িয়া ও তেজগাঁওয়ে খোলা হয়েছে নতুন টিকিট কাউন্টার। বাকি দুই স্টেশন হলো বিমানবন্দর ও বনানী।

আগের দিনেই ভিড়

কমলাপুর রেলস্টেশনে গতকাল সকালেই যাত্রীদের ভিড় জমে যায়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এ ভিড় আরো বাড়তে থাকে। গত তিন-চার দিন ধরেই কমলাপুর রেলস্টেশনে অগ্রিম টিকিট কাটতে যাত্রীরা সকাল থেকে ভিড় করছেন।

জানতে চাইলে স্টেশন ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কয়েক দিন ধরেই স্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের চাপ রয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে কাউন্টারে টিকিট তৈরি করতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না। তবে যেসব যাত্রী আগামী ২৬ এপ্রিল বা তার আগে যেতে চান, তাঁরাই মূলত আজকে (গতকাল) টিকিট কাটতে এসেছেন। যতক্ষণ টিকিট থাকবে ততক্ষণ যাত্রীরা টিকিট পাবেন। কাউন্টারের পাশাপাশি অনলাইনেও টিকিট দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে অনলাইনে কারো টিকিট কাটতে সমস্যা হচ্ছে না। ৩০ সেকেন্ডে ২৬ হাজার মানুষ একসঙ্গে টিকিট নিতে পারেন। ’ সহজ ডটকমের ব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) ফারহাত আহমেদ বলেন, ‘ঈদের জন্য আমাদের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সব স্টেশনে ইন্টারনেট সংযোগ শক্তিশালী করা হয়েছে। ’

সব টিকিট কমলাপুরে নয়

বিশেষ ব্যবস্থাপনায় রাজধানীর পাঁচটি স্টেশন থেকে টিকিট বিক্রি করা হবে। কমলাপুর স্টেশনে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চল ও খুলনাগামী ট্রেনের টিকিট, বিমানবন্দর স্টেশনে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হবে। তেজগাঁও স্টেশনে ময়মনসিংহ, জামালপুরগামী, দেওয়ানগঞ্জ স্পেশালসহ সব আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট, ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে (বনানী) মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেস ট্রেনের এবং ফুলবাড়িয়া পুরনো রেলস্টেশন থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্ত নগর ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হবে।

কোন দিন কোন টিকিট

ঈদ যাত্রার টিকিট ২৩ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৭ এপ্রিলের অগ্রিম টিকিট। ২৪ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৮ এপ্রিলের, ২৫ এপ্রিল দেওয়া হবে ২৯ এপ্রিলের, ২৬ এপ্রিল দেওয়া হবে ৩০ এপ্রিলের, ২৭ এপ্রিল দেওয়া হবে ১ মের অগ্রিম টিকিট। ১ মে দেওয়া হবে ৫ মের টিকিট, ২ মে দেওয়া হবে ৬ মের, ৩ মে দেওয়া হবে ৭ মের এবং ৪ মে দেওয়া হবে ৮ মের অগ্রিম টিকিট।

ছয় ঘণ্টায় ৫০ হাজার টিকিট বিক্রি

রেলওয়ের টিকিট বিক্রির ব্যবস্থাপনার নতুন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সহজ ডটকম থেকে জানানো হয়, গতকাল সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ৫০ হাজারের মতো টিকিট বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ২০ হাজারের মতো টিকিট। বাকি ৩০ হাজার টিকিট বিক্রি হয়েছে দেশের ৭৭টি রেলস্টেশনের কাউন্টারে।

ঈদে চলবে ছয় জোড়া বিশেষ রেল

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো যাত্রীদের ভ্রমণের সুবিধার্থে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে। সেগুলো হলো চাঁদপুর স্পেশাল-১, চাঁদপুর স্পেশাল-২, দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল, খুলনা স্পেশাল, শোলাকিয়া স্পেশাল-১ ও শোলাকিয়া স্পেশাল-২।

যা কিছু মনে রাখতে হবে

রেলের টিকিট কিনতে দেখাতে হবে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি)। যাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাঁরা জন্ম নিবন্ধন সনদ এবং শিক্ষার্থীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট কিনতে পারবেন। তবে শুধু ঈদকেন্দ্রিক নয়। এখন থেকে ট্রেনের টিকিট কিনতে পরিচয়পত্র দেখানোর নিয়ম ফিরিয়ে এনেছে রেল কর্তৃপক্ষ।

‘টিকিট যার ভ্রমণ তার’ এই স্লোগানে যাত্রীদের এনআইডি/জন্ম সনদ ফটোকপি কাউন্টারে দেখিয়ে টিকিট কেনা যাবে। একজনকে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট দেওয়া হবে। ঈদের অগ্রিম টিকিট ফেরত নেওয়া হবে না। এবার প্রথমবারের মতো প্রতিটি আন্ত নগর ট্রেনে শুধু নারী ও প্রতিবন্ধী যাত্রীদের জন্য একটি করে আলাদা কোচ সংযোজন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর