,

36

কারাগারেই প্রেমিকাকে বিয়ে করল ধর্ষক প্রেমিক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফেনীতে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ করে প্রেমিক জিয়াউল হক জিয়া। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার প্রেমিকার মামলায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেই থেকে কারাগারে ছিল ধর্ষক জিয়া। হাইকোর্টের দেয়া জামিনের শর্তে এবার কারা প্রাঙ্গণেই ধর্ষণের শিকার প্রেমিকাকে বিয়ে করল জিয়া।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেনী জেলা কারাগার প্রাঙ্গণে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান, কাজী আবদুর রহিম, দুই পক্ষের আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ছয় লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন  হয়। বিয়ে হওয়ায় ব্যাপক খুশি জিয়া দম্পতি ও দুই পক্ষের লোকজন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান, কাজী আবদুর রহিম, দুই পক্ষের আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ছয় লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন  হয়

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান, কাজী আবদুর রহিম, দুই পক্ষের আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ছয় লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়

ফেনী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান বলেন, চলতি বছরের ২৭ মে সোনাগাজী উপজেলার চর দরবেশ এলাকায় নিজের প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে জিয়া। ঘটনার দিনই তার বিরুদ্ধে মামলা করে ভুক্তভোগী। ২৯ মে জিয়াকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। পরে জামিন পেলেই ধর্ষণের শিকার প্রেমিকার সঙ্গে জিয়ার বিয়ে হবে জানিয়ে আদালতে আবেদন করে পরিবার।

তিনি আরো বলেন, ১ নভেম্বর কারাগার প্রাঙ্গণেই ভুক্তভোগীর সঙ্গে ধর্ষক জিয়ার বিয়ের আয়োজন করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সেই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে ১৯ নভেম্বর দুপুরে দুই পক্ষের আইনজীবী, পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ধর্ষণের শিকার প্রেমিকাকে বিয়ে করে জিয়াউল হক জিয়া।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর