ঢাকা ০৯:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যুব মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:৪১:১৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪
  • ১৬ বার

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ শনিবার (৬ জুলাই)। এ উপলক্ষ্যে ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে সংগঠনটি। ২০০২ সালের এই দিনে ছাত্রলীগের একঝাঁক সাবেক নেত্রীকে নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় যুব মহিলা লীগ।

শুক্রবার (৫ জুলাই) সংগঠনটির সভাপতি আলেয়া সারোয়ার ডেইজি ও সাধারণ সম্পাদক শারমিন সুলতানা লিলি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনে দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

২০০২ সালের ৬ জুলাই আওয়ামী লীগ সভাপতি ও তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের একঝাঁক সাবেক নেত্রীকে নিয়ে যুব মহিলা লীগ গঠন করেন। যুব মহিলা লীগ প্রতিষ্ঠার মূল লক্ষ্য ছিল নারী সমাজকে এ সংগঠনের পতাকাতলে একত্রিত করে সব বাধা জয় করে নারীর রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক মুক্তির পথে এগিয়ে যাওয়া এবং তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতিসহ সব অত্যাচার-অনিয়মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করা।

শনিবার (৬ জুলাই) সকাল ১০টায় ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে যুব মহিলা লীগ। সকাল সাড়ে ১০টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে কেক কাটা হবে। সকাল ১১টায় যুব মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শোভাযাত্রা হবে। এ কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয়সহ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সকল থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীকে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিস্থলে যুব মহিলা লীগের প্রতিনিধি দলের শ্রদ্ধা নিবেদন করবে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সারা দেশে বছরব্যাপী ২ লাখ ২২ হাজার বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। বন্যাদুর্গত এলাকায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বন্যার্ত মানুষের পাশে থাকার জন্য বলা হয়েছে। প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিটকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

যুব মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

আপডেট টাইম : ১০:৪১:১৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ শনিবার (৬ জুলাই)। এ উপলক্ষ্যে ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে সংগঠনটি। ২০০২ সালের এই দিনে ছাত্রলীগের একঝাঁক সাবেক নেত্রীকে নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় যুব মহিলা লীগ।

শুক্রবার (৫ জুলাই) সংগঠনটির সভাপতি আলেয়া সারোয়ার ডেইজি ও সাধারণ সম্পাদক শারমিন সুলতানা লিলি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনে দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

২০০২ সালের ৬ জুলাই আওয়ামী লীগ সভাপতি ও তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনা ছাত্রলীগের একঝাঁক সাবেক নেত্রীকে নিয়ে যুব মহিলা লীগ গঠন করেন। যুব মহিলা লীগ প্রতিষ্ঠার মূল লক্ষ্য ছিল নারী সমাজকে এ সংগঠনের পতাকাতলে একত্রিত করে সব বাধা জয় করে নারীর রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক মুক্তির পথে এগিয়ে যাওয়া এবং তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতিসহ সব অত্যাচার-অনিয়মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করা।

শনিবার (৬ জুলাই) সকাল ১০টায় ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে যুব মহিলা লীগ। সকাল সাড়ে ১০টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে কেক কাটা হবে। সকাল ১১টায় যুব মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শোভাযাত্রা হবে। এ কর্মসূচিতে কেন্দ্রীয়সহ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সকল থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীকে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিস্থলে যুব মহিলা লীগের প্রতিনিধি দলের শ্রদ্ধা নিবেদন করবে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সারা দেশে বছরব্যাপী ২ লাখ ২২ হাজার বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। বন্যাদুর্গত এলাকায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বন্যার্ত মানুষের পাশে থাকার জন্য বলা হয়েছে। প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিটকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।