ঢাকা ০৯:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কিশোরগঞ্জে অটোচালককে পুড়িয়ে হত্যা

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:০৯:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • ৫৭৯ বার

কিশোরগঞ্জে আগুনে পুড়িয়ে শামীম (১৮) নামে এক অটোরিকশা চালককে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শামীম সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের আমআটি শিবপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার কালিকাপ্রসাদ এলাকায় তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, গ্রামের কয়েকজন বখাটে শামীমদের বাড়ির পাশে নিন্দু মিয়ার ফিসারিতে বসে নিয়মিতভাবে নেশাগ্রহণসহ অসামাজিক কার্যকলাপ করত। শামীম তাদেরকে নিষেধ করায় এ নিয়ে প্রায়ই বখাটেদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হত। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অটোরিকশা চালিয়ে বাড়ি ফেরার পথে শামীমকে ওই ফিসারিতে ডেকে নিয়ে যায় ওই বখাটেরা। সেখানে তারা শামীমের হাত-পা বেধে শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। দগ্ধ শামীমের আর্ত চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়। শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় চিকিৎসকদের পরামর্শে সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শামীমকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্য রওনা দেয় তার স্বজনরা। পথে ভৈরব উপজেলার কালিকাপ্রসাদ এলাকায় তার মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈয়দ মো. আবু সায়েম জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

কিশোরগঞ্জে অটোচালককে পুড়িয়ে হত্যা

আপডেট টাইম : ১০:০৯:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৫

কিশোরগঞ্জে আগুনে পুড়িয়ে শামীম (১৮) নামে এক অটোরিকশা চালককে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শামীম সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের আমআটি শিবপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার কালিকাপ্রসাদ এলাকায় তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, গ্রামের কয়েকজন বখাটে শামীমদের বাড়ির পাশে নিন্দু মিয়ার ফিসারিতে বসে নিয়মিতভাবে নেশাগ্রহণসহ অসামাজিক কার্যকলাপ করত। শামীম তাদেরকে নিষেধ করায় এ নিয়ে প্রায়ই বখাটেদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হত। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অটোরিকশা চালিয়ে বাড়ি ফেরার পথে শামীমকে ওই ফিসারিতে ডেকে নিয়ে যায় ওই বখাটেরা। সেখানে তারা শামীমের হাত-পা বেধে শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। দগ্ধ শামীমের আর্ত চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়। শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় চিকিৎসকদের পরামর্শে সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শামীমকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্য রওনা দেয় তার স্বজনরা। পথে ভৈরব উপজেলার কালিকাপ্রসাদ এলাকায় তার মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈয়দ মো. আবু সায়েম জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।