অপারেশন থিয়েটারে হবু স্ত্রীকে নিয়ে ফটোশুট

হবু স্বামী পেশায় চিকিৎসক। বিয়ের আগে প্রাক-বিবাহ (প্রি ওয়েডিং) শুটিংয়ের জন্যই তিনি বেছে নিয়েছিলেন অপারেশন থিয়েটারের (ওটি) মতো জায়গাকে! একটি নকল অস্ত্রোপচারের ভিডিওর মাধ্যমে হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে প্রি ওয়েডিং শুট করেন ওই চিকিৎসক। ঘটনাটি ঘটে গত বুধবার ভারতের কর্নাটকের চিত্রদুর্গ জেলার একটি হাসপাতালে।

চিকিৎসকের এমন কাণ্ডের একটি ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভিডিওটি নজরে পড়ে কর্নাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী দীনেশ গুন্ডুরাওয়ের। এ ঘটনায় ওই চিকিৎসককে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। জানা গেছে, ওই চিকিৎসকের নাম অভিষেক।

ভিডিওতে দেখা যায়, চিকিৎসক অভিষেক একজন রোগীর অস্ত্রোপচার করছেন। আর সামনে দাঁড়িয়ে তার স্ত্রী তাকে সাহায্য করছেন। আর বেশ কয়েকজন লাইট, ক্যামেরা নিয়ে ভিডিও এবং ছবি তুলছেন। যদিও শেষ পর্যন্ত দেখে মনে হচ্ছে এটা সত্যি করে কোনো অস্ত্রোপচার ছিল না। কারণ অস্ত্রোপচারের বেডে থাকা ব্যক্তিকে ডাকার পরেই তিনি উঠে হাসতে থাকেন।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী দীনেশ গুন্ডুরাওয়ে বলেন, ‘সরকারি হাসপাতালগুলো জনসাধারণের সেবা করার জন্য। ব্যক্তিগত কাজকর্মের জন্য নয়। আমি এই ধরনের শৃঙ্খলাভঙ্গ মোটেই সহ্য করব না। সমস্ত ডাক্তার, কর্মচারী এবং চুক্তিভিত্তিক কর্মচারীদের নির্দেশনা অনুযায়ী তাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমি ইতোমধ্যেই সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ও কর্মকর্তাদের সরকারি হাসপাতালের প্রাঙ্গণ অপব্যবহার না করার নির্দেশ দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘সরকারি হাসপাতালগুলোতে সরকার যে সমস্ত সুযোগ-সুবিধা দেয় তা সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবার জন্য। সকলেরই কর্তব্য পালনে মনোনিবেশ করা উচিত। সরকারি হাসপাতালগুলো জনগণের স্বাস্থ্যসেবার জন্য। ব্যক্তিগত কাজের জন্য নয়।’

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, যে অপারেশন থিয়েটারে শুটিং করা হয়েছিল, তা গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে বন্ধ পড়ে রয়েছে। রুমটি মেরামতের কাজ চলছিল। ওই বছরের শুরুতে মেডিক্যাল অফিসার পদে অভিষেক হাসপতালটিতে যোগদান করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর