,

ইউক্রেনের অগ্রগতি নিয়ে সংশয়ে পশ্চিমারা, যুদ্ধ তীব্র হওয়ার আশঙ্কা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ইউক্রেনে সামরিক অভিযানে খারকিভের একটি গুরুত্বপূর্ণ শহর বিচ্ছিন্ন করার দাবি করেছে প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। কিন্তু পশ্চিমারা ইজিয়ামের আশেপাশের এলাকায় ইউক্রেনীয় বাহিনীর তেমন কোনো অবস্থান খুঁজে পায়নি স্যাটেলাইট।

স্যাটেলাইট ডেটা, স্বাধীন সামরিক বিশ্লেষক এবং ইউক্রেনীয় বাহিনীর ফটো এবং ভিডিওগুলি ইঙ্গিত দেয়, তারা দ্রুত ইজিয়ামের উত্তরে আরেকটি লজিস্টিক্যাল হাব কুপিয়ানস্কের দিকে চলে গেছে। এদিকে, রাশিয়ান বাহিনীও তাদের অবস্থান শক্তিশালী করছে।

শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, খারকিভ অঞ্চলকে শক্তিশালী করার জন্য সেনা সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

পশ্চিমা কর্মকর্তারা সতর্ক করে বলেছে, ইউক্রেনীয় সেনাদের আক্রমণাত্মক অভিযানগুলো প্রাথমিক পর্যায়ে ছিল। এতে পরিস্থিতি জটিল হয়েছে এবং তারা যতটুকু অগ্রগতি অর্জন করেছে তাও নিরাপদ নয়। ইউক্রেনের অগ্রগতির সমস্ত দাবি স্বাধীনভাবে যাচাই করা যায়নি, ইউক্রেনের পূর্ব এবং দক্ষিণ উভয় অঞ্চলে লড়াইয়ের অবস্থা সম্পর্কে অনেক কিছুই অনিশ্চয়তার মধ্যে ছেয়ে গেছে, কারণ কিয়েভের সরকার একটি মিডিয়া ব্ল্যাকআউট প্রয়োগ করে যুদ্ধক্ষেত্রে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার সীমাবদ্ধ করেছে।

গত কয়েক মাস ধরে, ইউক্রেনের নেতারা উচ্চস্বরে এবং প্রায়শই বন্দর শহর খেরসনকে ঘিরে দক্ষিণে পাল্টা আক্রমণ চালানোর তাদের অভিপ্রায় ঘোষণা করেছিলেন। তারা এই অঞ্চলে রাশিয়ান সরবরাহ লাইন, গোলাবারুদ ডিপো এবং কমান্ড সেন্টারগুলিকে রকেট দিয়ে আঘাত করার চেষ্টাও করেছিল। তারা শত্রু লাইনের অনেক পিছনে সামরিক ঘাঁটি এবং রাশিয়ান সহযোগীদের উপর গোপন আক্রমণ পরিচালনা করেছিল। কিন্তু তারা এ সপ্তাহ পর্যন্ত বলার মতো কার্যত কিছুই অর্জন করতে পারেনি।

উত্তর-পূর্ব ইউক্রেন থেকে দক্ষিণে কৃষ্ণ সাগর উপকূল পর্যন্ত এক হাজার ৫০০ মাইল প্রসারিত ফ্রন্ট লাইনে অধিকৃত অঞ্চল রক্ষা করা রাশিয়ার জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। এ এলাকায় ইউক্রেনীয় সেনারা প্রায়শই আক্রমণ চালানোর চেষ্টা করে, তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তারা ব্যর্থ হয়েছে, কিন্তু তারা একেই বড় সাফল্য বলে দাবি করে।

বৃহস্পতিবার মার্কিন জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক এ মিলি বলেছেন, ইউক্রেন সাম্প্রতিক দিনগুলিতে হয়তো বাস্তব কিছু অগ্রগতি লাভ করেছে। তবে তিনি যুদ্ধ আরও তীব্র হতে পারে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। ইউক্রেনকে নিয়ে বেশি কিছু প্রত্যাশা না করার কথা বলেছেন তিনি।

জার্মানিতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, খারকিভ থেকে শুরু করে খেরসন পর্যন্ত যুদ্ধ চলছে। তাদের সঙ্গে আক্রমণ এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও আছে। তিনি দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্রের হিমারস মিসাইল ব্যবস্থার কারণে ইউক্রেনীয়রা যুদ্ধে কিছু সুবিধা পাচ্ছে। তবে তিনি জোর দিয়েছিলেন, রাশিয়া এখনো যুদ্ধে উল্লেখযোগ্য সুবিধাগুলো ধরে রেখেছে। যুদ্ধ শেষ হয়নি।

তিনি বলেছিলেন, রাশিয়া একটি বড় দেশ এবং ইউক্রেনের ব্যাপারে তাদের গুরুতর উচ্চাকাঙ্ক্ষা রয়েছে।

সূত্র: নিউইয়র্ক টাইমস

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর