,

শেরপুরে ব্রহ্মপুত্রে বিলীন ২০ বাড়ি-৫০ একর জমি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গত এক মাসের ব্যবধানে শেরপুরে ব্রহ্মপুত্র নদে আবারও ভাঙন শুরু হয়েছে। গত সপ্তাহে নদীতে বিলীন হয়েছে এক কিলোমিটার কাঁচা সড়ক, ২০টি বাড়িসহ ৫০ একর আবাদি জমি

ভাঙন অব্যাহত থাকায় আতঙ্কে রয়েছেন নদী তীরের মানুষ।

জেলার নকলা উপজেলায় এক মাস আগে ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙনে বিলীন হয়েছে বেশ কিছু বাড়িঘর ও আবাদি জমি। এখন আবারও শুরু হয়েছে ভাঙন। এদিকে উপজেলার কেজাইকাটা থেকে চর বসন্তি পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার অংশে তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে।

নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে ৫০ একর আবাদি জমি, ২০টি বাড়ি ও এক কিলোমিটার কাঁচা সড়ক। ভিটেমাটি-ফসলি জমি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন অনেক মানুষ।

এর আগে প্রথম দফার ভাঙনে এলাকার নারায়ণখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাংশ বিলীন হয়ে যায়। এবার পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন হওয়ার হুমকিতে একমাত্র প্রাথমিক বিদ্যালয়টিও।

এ অবস্থায় ভাঙন রোধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে ইতোমধ্যে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। এদিকে ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবু সাইদ।

এর আগে গত বছর কয়েক দফায় ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙনে মসজিদ, কবরস্থানসহ কয়েকশ বাড়িঘর এবং অনেক আবাদী জমি বিলীন হয়ে গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর