ঢাকা ১০:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ২৮৮ জন মিয়ানমারে ফিরলেন

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:৪৩:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪
  • ১১ বার

মিয়ানমারে চলমান অভ্যন্তরীণ সংঘর্ষে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ২৮৮ জন মিয়ানমারের বিজিপি, সেনা, ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য সদস্যদের মিয়ানমারে নিয়ে যাওয়া  হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) কক্সবাজার শহরের  বিআইডাব্লিউটিএ ঘাট থেকে তাদের প্রত্যাবাসন কার্যক্রম আয়োজন করা হয়।

এদিন সকাল সাড়ে ৬টায় কর্ণফুলী টাগ-১ নামক জাহাজে মিয়ানমারের সেনা ও অন্যান্যদের নিয়ে বাংলাদেশ ত্যাগ করে। ওই জাহাজটি ১৭৩ প্রত্যাগমনকারী বাংলাদেশি নাগরিকদের নিয়ে গতকাল বুধবার কক্সবাজারের বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে এসেছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল প্রত্যাগমনকারী বাংলাদেশিদের নিয়ে মিয়ানমারের প্রতিনিধিরা বিজিবির নাইক্ষ্যংছড়ি ক্যাম্পে অবস্থানরত বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের বিজিপি ও অন্যান্য সদস্যদের দ্রুত শনাক্তকরণ এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টেশন সম্পন্ন করে। সেখানে বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমার দূতাবাস ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধির উপস্থিতিতে জাহাজযোগে আগত বিজিপি সদস্যদের নিকট আশ্রয় প্রাপ্তদের হস্তান্তর করা হয়। পরে তাদের বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে আনা হয়।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত ৬০০ এর অধিক আশ্রয়প্রার্থী মিয়ানমারের বিজিপি ও সামরিক বাহিনীর সদস্যকে মানবিক বিবেচনায় আশ্রয় প্রদান ও প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিজিবি কর্তৃপক্ষ আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমার বিজিপি, সেনা সদস্য ও অন্যান্যদের মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক উদ্যোগে তাদের প্রত্যাবাসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ২৮৮ জন মিয়ানমারে ফিরলেন

আপডেট টাইম : ১০:৪৩:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

মিয়ানমারে চলমান অভ্যন্তরীণ সংঘর্ষে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া ২৮৮ জন মিয়ানমারের বিজিপি, সেনা, ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য সদস্যদের মিয়ানমারে নিয়ে যাওয়া  হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) কক্সবাজার শহরের  বিআইডাব্লিউটিএ ঘাট থেকে তাদের প্রত্যাবাসন কার্যক্রম আয়োজন করা হয়।

এদিন সকাল সাড়ে ৬টায় কর্ণফুলী টাগ-১ নামক জাহাজে মিয়ানমারের সেনা ও অন্যান্যদের নিয়ে বাংলাদেশ ত্যাগ করে। ওই জাহাজটি ১৭৩ প্রত্যাগমনকারী বাংলাদেশি নাগরিকদের নিয়ে গতকাল বুধবার কক্সবাজারের বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে এসেছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল প্রত্যাগমনকারী বাংলাদেশিদের নিয়ে মিয়ানমারের প্রতিনিধিরা বিজিবির নাইক্ষ্যংছড়ি ক্যাম্পে অবস্থানরত বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের বিজিপি ও অন্যান্য সদস্যদের দ্রুত শনাক্তকরণ এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টেশন সম্পন্ন করে। সেখানে বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমার দূতাবাস ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধির উপস্থিতিতে জাহাজযোগে আগত বিজিপি সদস্যদের নিকট আশ্রয় প্রাপ্তদের হস্তান্তর করা হয়। পরে তাদের বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে আনা হয়।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত ৬০০ এর অধিক আশ্রয়প্রার্থী মিয়ানমারের বিজিপি ও সামরিক বাহিনীর সদস্যকে মানবিক বিবেচনায় আশ্রয় প্রদান ও প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিজিবি কর্তৃপক্ষ আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমার বিজিপি, সেনা সদস্য ও অন্যান্যদের মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক উদ্যোগে তাদের প্রত্যাবাসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।