ঢাকা ০৯:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তীব্র গরমে সড়কে স্যালাইন-পানি হাতে ফেনী পৌর মেয়র

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৭:৫১:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৩ বার

সারা দেশের মতো ফেনীতে বইছে তীব্র তাপপ্রবাহ। গরমে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষের জীবন। এরমধ্যে দিনমজুর, শ্রমজীবী মানুষ ও রিকশাচালকদের ভোগান্তি চরমে। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে পৌর শহরের চারটি পয়েন্টে সুপেয় পানির জন্য ফিল্টার স্থাপন করেছে ফেনী পৌরসভা। পাশাপাশি দ্বিতীয় দিনের মতো রিকশাচালকদের মাঝে স্যালাইন, ঠান্ডা পানি ও কোমলজাত পানীয় বিতরণ করেছেন ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ফেনী পৌরসভার উদ্যোগে দুপুরে শহরের জিরো পয়েন্ট দোয়েল চত্বরে দ্বিতীয় দিনে এ কার্যক্রম পরিচালনা করেন মেয়র। এর আগে গতকাল বুধবার (২৪ এপ্রিল) রিকশা ও ভ্যান চালকদের মাঝে আইসক্রিম বিতরণ করেন তিনি। তীব্র গরমে এমন উপহার পেয়ে খুশি রিকশাচালক ও শ্রমজীবী মানুষ। তারা বলছেন, ‘গরম কমানো তো আমাদের হাতে নেই, তবে এ গরমে একটু ঠান্ডা পানি ও স্যালাইন খেতে পেরেছি, খুব ভালো লাগছে।’

জব্বার মিয়া নামে একজন রিকশা চালক বলেন, ‘আমাদের মেয়র সবসময় আমাদের কথা চিন্তা করেন। এ গরমে গাড়ি চালানো খুব কষ্টকর। এরমধ্যে মেয়র স্যালাইন পানি হাতে আমাদের জন্য দাঁড়িয়ে আছেন, একটু ঠান্ডা খেতে পেরেছি। গরম কিছুটা হলেও লাগব হয়েছে।’

রবিউল হক নামে একজন ভ্যান চালক বলেন, ‘এ গরমে এমনিতেই আমাদের আয় রোজগার কম। তাও পরিবারের চিন্তা করে গাড়ি নিয়ে বের হয়েছি। এরমধ্যে রাস্তায় মেয়র মহোদয় কোক, পানি ও স্যালাইন দিয়েছে। এটি পেয়ে খুব ভালো লাগছে।’

মেয়রের এমন উদ্যোগ স্বাগত জানিয়েছেন ফেনীর সচেতন মহল। ফেনী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আইনুল কবির শামীম বলেন, এটি অসাধারণ উদ্যোগ। সমাজে অনেক বিত্তশালী রয়েছে। সকলে মেয়রের মতো নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসলে এ গরমে শ্রমজীবী মানুষরা কিছুটা স্বস্তিতে থাকতে পারবে।’

পৌরসভা সূত্র জানায়, শহরের দোয়েল চত্বর, খেঁজুর চত্বর, জহিরিয়া মসজিদ ও বড় মসজিদের সামনে ৫০০ লিটার ট্যাংকের মাধ্যমে পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রতিটি পয়েন্টে একজন করে পৌরকর্মী দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও প্রথম দিন শহরে চলাচলরত ৫০০ রিকশা চালকদের মাঝে আইসক্রিম বিতরণ করা হয়েছে এবং দ্বিতীয় দিনও ৫ শতাধিক রিকশাচালকদের মাঝে পানি, স্যালাইন ও কোমলজাত পানীয় এবং শরবত বিতরণ করা হয়েছে।

এমন কার্যক্রমের বিষয়ে মেয়র স্বপন মিয়াজী বলেন, সারা দেশের ন্যায় ফেনীতে তীব্র গরমে কাবু সব পেশার মানুষ। বিশেষ করে রিকশা চালক ও পথচারীরা কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। তাদের কথা চিন্তা করে শহরের জনগুরুত্বপূর্ণ চারটি স্থানে সুপেয় ঠান্ডা পানি ও শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রিকশা চালকরা রোদের মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। চালকদের দোকান থেকে ঠান্ডা পানি কিনে খাওয়ার সামর্থ্য থাকে না। তাদের ঠান্ডা পানি, স্যালাইন ও কোক দেয়া হয়েছে। যত দিন তাপপ্রবাহ থাকবে, ততদিন এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, ‘ফেনীতে অনেক বিত্তশালী রয়েছেন। আমাদের কর্মকাণ্ড দেখে আশপাশের সামর্থ্যবানরা এগিয়ে আসলে নিম্নআয়ের মানুষদের কষ্ট কিছুটা লাগব হবে।’

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

তীব্র গরমে সড়কে স্যালাইন-পানি হাতে ফেনী পৌর মেয়র

আপডেট টাইম : ০৭:৫১:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

সারা দেশের মতো ফেনীতে বইছে তীব্র তাপপ্রবাহ। গরমে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষের জীবন। এরমধ্যে দিনমজুর, শ্রমজীবী মানুষ ও রিকশাচালকদের ভোগান্তি চরমে। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে পৌর শহরের চারটি পয়েন্টে সুপেয় পানির জন্য ফিল্টার স্থাপন করেছে ফেনী পৌরসভা। পাশাপাশি দ্বিতীয় দিনের মতো রিকশাচালকদের মাঝে স্যালাইন, ঠান্ডা পানি ও কোমলজাত পানীয় বিতরণ করেছেন ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ফেনী পৌরসভার উদ্যোগে দুপুরে শহরের জিরো পয়েন্ট দোয়েল চত্বরে দ্বিতীয় দিনে এ কার্যক্রম পরিচালনা করেন মেয়র। এর আগে গতকাল বুধবার (২৪ এপ্রিল) রিকশা ও ভ্যান চালকদের মাঝে আইসক্রিম বিতরণ করেন তিনি। তীব্র গরমে এমন উপহার পেয়ে খুশি রিকশাচালক ও শ্রমজীবী মানুষ। তারা বলছেন, ‘গরম কমানো তো আমাদের হাতে নেই, তবে এ গরমে একটু ঠান্ডা পানি ও স্যালাইন খেতে পেরেছি, খুব ভালো লাগছে।’

জব্বার মিয়া নামে একজন রিকশা চালক বলেন, ‘আমাদের মেয়র সবসময় আমাদের কথা চিন্তা করেন। এ গরমে গাড়ি চালানো খুব কষ্টকর। এরমধ্যে মেয়র স্যালাইন পানি হাতে আমাদের জন্য দাঁড়িয়ে আছেন, একটু ঠান্ডা খেতে পেরেছি। গরম কিছুটা হলেও লাগব হয়েছে।’

রবিউল হক নামে একজন ভ্যান চালক বলেন, ‘এ গরমে এমনিতেই আমাদের আয় রোজগার কম। তাও পরিবারের চিন্তা করে গাড়ি নিয়ে বের হয়েছি। এরমধ্যে রাস্তায় মেয়র মহোদয় কোক, পানি ও স্যালাইন দিয়েছে। এটি পেয়ে খুব ভালো লাগছে।’

মেয়রের এমন উদ্যোগ স্বাগত জানিয়েছেন ফেনীর সচেতন মহল। ফেনী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আইনুল কবির শামীম বলেন, এটি অসাধারণ উদ্যোগ। সমাজে অনেক বিত্তশালী রয়েছে। সকলে মেয়রের মতো নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসলে এ গরমে শ্রমজীবী মানুষরা কিছুটা স্বস্তিতে থাকতে পারবে।’

পৌরসভা সূত্র জানায়, শহরের দোয়েল চত্বর, খেঁজুর চত্বর, জহিরিয়া মসজিদ ও বড় মসজিদের সামনে ৫০০ লিটার ট্যাংকের মাধ্যমে পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রতিটি পয়েন্টে একজন করে পৌরকর্মী দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও প্রথম দিন শহরে চলাচলরত ৫০০ রিকশা চালকদের মাঝে আইসক্রিম বিতরণ করা হয়েছে এবং দ্বিতীয় দিনও ৫ শতাধিক রিকশাচালকদের মাঝে পানি, স্যালাইন ও কোমলজাত পানীয় এবং শরবত বিতরণ করা হয়েছে।

এমন কার্যক্রমের বিষয়ে মেয়র স্বপন মিয়াজী বলেন, সারা দেশের ন্যায় ফেনীতে তীব্র গরমে কাবু সব পেশার মানুষ। বিশেষ করে রিকশা চালক ও পথচারীরা কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। তাদের কথা চিন্তা করে শহরের জনগুরুত্বপূর্ণ চারটি স্থানে সুপেয় ঠান্ডা পানি ও শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রিকশা চালকরা রোদের মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। চালকদের দোকান থেকে ঠান্ডা পানি কিনে খাওয়ার সামর্থ্য থাকে না। তাদের ঠান্ডা পানি, স্যালাইন ও কোক দেয়া হয়েছে। যত দিন তাপপ্রবাহ থাকবে, ততদিন এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, ‘ফেনীতে অনেক বিত্তশালী রয়েছেন। আমাদের কর্মকাণ্ড দেখে আশপাশের সামর্থ্যবানরা এগিয়ে আসলে নিম্নআয়ের মানুষদের কষ্ট কিছুটা লাগব হবে।’