,

1659029834_russia-ukrain-war

ইউক্রেনে হামলার মাত্রা বাড়িয়েছে রাশিয়া

হাওর বার্তা ডেস্কঃ রাশিয়ান গ্যাসে নিষেধাজ্ঞা দেয়া সম্ভব নয় : অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর :: ল্যাভরভের সঙ্গে কথা বলবেন ব্লিঙ্কেন :: ইরানের সাথে নতুন বাণিজ্য চুক্তিতে স্বাক্ষর করছে রাশিয়া :: পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকি সম্পর্কে হুঁশিয়ারি ব্রিটিশ এনএসএ’র :: সেন্ট পিটার্সবার্গে আগামী বছর রাশিয়া-আফ্রিকা শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে :: আফগানিস্তানের সম্পদ মুক্ত করার আহবান রাশিয়ার :: ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করেছে রুশ যুদ্ধবিমান :: ইউক্রেনের বিষয়ে মার্কিন তথ্যকে ভুয়া হিসাবে বিবেচনা করা উচিত : ক্রেমলিন
রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্রগুলো এবার সরাসরি ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে আঘাত করেছে বলে জানা গেছে। যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে যে, খেরসনে দূরপাল্লার মার্কিন অস্ত্র দিয়ে ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণের জবাবে হামলা জোরদার করেছে রাশিয়া। এর ফলে ডনবাসের বাইরেও ব্যাপক এলাকা দখলে নিতে পারে রুশ সেনা।

গতকাল রাশিয়ান বাহিনী ইউক্রেনের কিয়েভ এবং চেরনিহিভ অঞ্চলে ব্যাপক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করেছে, যেসব অঞ্চল কয়েক সপ্তাহের মধ্যে লক্ষ্যবস্তু করা হয়নি, যখন ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা দেশটির দক্ষিণে একটি দখলকৃত অঞ্চল মুক্ত করার জন্য একটি অভিযান ঘোষণা করেন। কিয়েভের আঞ্চলিক গভর্নর ওলেক্সি কুলেবা টেলিগ্রামে বলেছেন যে, গতকাল ভোরে এ অঞ্চলের ভিশগোরোড জেলার একটি বসতিকে লক্ষ্যবস্তু করা হয়; একটি ‘অবকাঠামো বস্তু’ আঘাত করা হয়। এসব হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ভিশগোরোড কিয়েভ শহরের কেন্দ্রস্থল থেকে ২০ কিলোমিটার (প্রায় ১২ মাইল) উত্তরে অবস্থিত। কুলেবা হামলাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দিবসের সাথে যুক্ত করেছে, যা ইউক্রেন গতকাল প্রথমবারের মতো চিহ্নিত করেছে। কুলেবা ইউক্রেনীয় টেলিভিশনকে বলেছেন, ‘রাশিয়া ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে ব্যাপক জনপ্রিয় প্রতিরোধের প্রতিশোধ নিচ্ছে, যা ইউক্রেনীয়রা তাদের রাষ্ট্রীয়তার কারণে সুনির্দিষ্টভাবে সংগঠিত করতে সক্ষম হয়েছিল’। ‘ইউক্রেন ইতোমধ্যে রাশিয়ার পরিকল্পনা ভঙ্গ করেছে এবং নিজেদের রক্ষা করতে থাকবে’।

 

ইউক্রেনের একজন সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তা বলেছেন যে মস্কোর বাহিনী রাজধানী কিয়েভের উত্তরে একটি সামরিক ঘাঁটিতে আঘাত করেছে। এটি ছিল ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামোতে রাশিয়ার সফল আক্রমণের একটি বিরল স্বীকারোক্তি। ওলেক্সি গ্রোমভ নামের ওই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেছেন যে, রুশ বাহিনী ক্রিমিয়া উপদ্বীপ থেকে ‘লুটিজে একটি সামরিক ঘাঁটিতে ছয়টি কালিব্র ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে’। রাজধানী থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার (১৯ মাইল) উত্তরে শহরে হামলায় একটি ভবন ধ্বংস এবং দুটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গ্রোমভ ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চলীয় চেরনিহিভ অঞ্চলে হামলার কথাও জানিয়েছেন, যেখানে মস্কোর মিত্র ও প্রতিবেশী বেলারুশ থেকে গুলি চালানো হয়েছে। তিনি যোগ করেছেন যে, ইউক্রেনীয় সেনাদের মধ্যে ব্যাপক ‘ক্ষতি’ হয়েছে।

রাশিয়ান গ্যাসের উপরে নিষেধাজ্ঞা দেয়া সম্ভব নয় : হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবানের সাথে এক সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রিয়ান চ্যান্সেলর কার্ল নেহামার বলেছেন, রাশিয়ান গ্যাসের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা অসম্ভব কারণ এটি শিল্পের পতন এবং বেকারত্বের হুমকি দেয়। ‘অস্ট্রিয়ার অবস্থান এমন যে গ্যাসের ক্ষেত্রে একটি নিষেধাজ্ঞা প্রবর্তন করা অসম্ভব। শুধুমাত্র অস্ট্রিয়া রাশিয়ান গ্যাসের উপর নির্ভরশীল বলে নয়, জার্মান শিল্পও এটির উপর নির্ভর করে, এবং যদি এটি ধসে পড়ে, তবে অস্ট্রিয়ানটিও ভেঙে পড়বে; আমরা ব্যাপক বেকারত্বের মুখোমুখি হব,’ রাজনীতিবিদ বলেছিলেন।

ইউক্রেন অভিযানের পর প্রথমবারের মতো ল্যাভরভের সঙ্গে কথা বলবেন বিøঙ্কেন : যুক্তরাষ্ট্রের সেক্রেটারি অফ স্টেট এন্টনি বিøঙ্কেন বুধবার বলেছেন যে, তিনি রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সাথে ‘আগামী দিনগুলিতে’ কথা বলার পরিকল্পনা করছেন। দুই নেতার আলোচনার মধ্যে ডবিøউএনবিএ তারকা ব্রিটনি গ্রিনার এবং রাশিয়ায় অন্যান্য আমেরিকানদের আটকের পাশাপাশি শস্য রপ্তানির সাম্প্রতিক চুক্তি পুনরায় শুরু করার মতো বিষয়গুলোও রয়েছে।

গত ২৪ ফেব্রæয়ারী ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরু হওয়ার পর এটিই প্রথম এ ধরনের কল হবে, যদিও বিøঙ্কেন জোর দিয়েছিলেন যে এটি ‘ইউক্রেন সম্পর্কে আলোচনা হবে না।’ তিনি আরও বলেছিলেন যে, তিনি ল্যাভরভকে সতর্ক করবেন যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ইউক্রেনের ভুখন্ডের রাশিয়ার সংযুক্তি গ্রহণ করবে না।
বিøঙ্কেন বলেছিলেন যে, গ্রিনার, যার বিরুদ্ধে রাশিয়ায় গাঁজা আনার অভিযোগ আনা হয়েছিল এবং প্রাক্তন মেরিন সেনা পল হুইলান, যিনি গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগের মুখোমুখি হয়েছেন, তাদের মুক্তির জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ানদের কাছে একটি প্রস্তাব দিয়েছিল।

নতুন বাণিজ্য চুক্তিকে স্বাক্ষর করছে রাশিয়া ও ইরান : ইরানের বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার প্রতিনিধি মীর-আকবর রাজাভি ঘোষণা করেছেন, রাশিয়ার কাছে ইরানের বিমানের যন্ত্রাংশ এবং সরঞ্জাম রপ্তানি করার বিষয়ে একটি সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করতে সম্মত হয়েছে মস্কো ও তেহরান। এর আওতায় রাশিয়ান বিমানের মেরামতও করবে ইরান। ইরানি বার্তা সংস্থা এমইএইচআর জানিয়েছে, চুক্তিটি ‘ইরানের মেরামত কেন্দ্রগুলি দ্বারা রাশিয়ান বিমানের মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ পরিষেবা এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা পরিচালনা করার পাশাপাশি ইরানে তৈরি যন্ত্রাংশ এবং সরঞ্জাম রাশিয়ায় রপ্তানির সুযোগ প্রদান করবে’। অতিরিক্তভাবে, একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে, যার অনুসারে ইরান এবং রাশিয়ার মধ্যে যাত্রীবাহী ফ্লাইটের সংখ্যা প্রতি সপ্তাহে ৩৫টি পর্যন্ত বাড়ানো হবে।

ইউক্রেনে রাশিয়ান আক্রমণ শুরু হওয়ার পর, আমেরিকান বিমান নির্মাতা বোয়িং রাশিয়ান এয়ারলাইনগুলির রক্ষণাবেক্ষণ এবং সহায়তা বন্ধ করে দেয় এবং ইউরোপীয় নির্মাতা এয়ারবাসের মতো খুচরা যন্ত্রাংশ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। তদুপরি, যুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইইউ এবং অন্যান্য দেশ রাশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটের উপর বিধিনিষেধ চালু করেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন, অন্যান্য বিষয়গুলির মধ্যে, রাশিয়ান বিমান শিল্পের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। ইরানের সাথে নতুন চুক্তি রাশিয়ায় জন্য সেই নিষেধাজ্ঞা লাঘবে সহায়ক হবে।

পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকি সম্পর্কে হুঁশিয়ারি ব্রিটিশ এনএসএ’র : যুক্তরাজ্যের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা স্টিফেন লাভগ্রোভ, রাশিয়া এবং চীনের সাথে পারমাণবিক সংঘর্ষের ক্রমবর্ধমান ঝুঁকি সম্পর্কে সতর্ক করেছেন। কারণ, শীতল যুদ্ধের সময় শান্তি বজায় রাখতে সাহায্যকারী ব্যাকডোর যোগাযোগ চ্যানেলগুলোর একটি ভাঙ্গনের মধ্যে রয়েছে। গতকাল ওয়াশিংটন ডিসিতে বক্তৃতাকালে লাভগ্রোভ বলেছিলেন যে, সংলাপের অভাব এমন এক সময়ে ঘটছিল যখন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে কেবলমাত্র কৌশলগত ঝুঁকিগুলির একটি ‘বিস্তৃত পরিসর’ ছিল না, বরং অস্ত্রের বিস্তার, এবং মহাকাশের মতো এলাকায় প্রতিদ্বিদ্বতা বৃদ্ধির ফলে আরও ‘বাড়ন্ত হওয়ার পথ’ ছিল।
তিনি বুধবার সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজে বলেন, ‘শীতল যুদ্ধের দুটি একচেটিয়া বøক ইউএসএসআর (সোভিয়েত ইউনিয়ন) এবং ন্যাটো একটি বোঝাপড়ায় পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছিল যা আজ অনুপস্থিত।’ তিনি বলেছিলেন যে, পারস্পরিক বোঝাপড়া নিশ্চিত করতে সাহায্য করেছে যে বিশ্ব যেন পরমাণু সংঘাতে না পড়ে। ‘এটি আমাদের উভয়কে উচ্চ স্তরের আত্মবিশ্বাস দিয়েছে যে আমরা পারমাণবিক যুদ্ধে আমাদের পথের ভুল গণনা করব না,’ লাভগ্রোভ বলেছিলেন, ‘কিন্তু আজ আমাদের অন্যদের সাথে বোঝাপড়ার সেই একই ভিত্তি নেই যারা ভবিষ্যতে আমাদের হুমকি দিতে পারে – বিশেষ করে চীনের সাথে।’

সেন্ট পিটার্সবার্গে আগামী বছর রাশিয়া-আফ্রিকা শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে : রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ রাশিয়া-আফ্রিকা শীর্ষ সম্মেলন ২০২৩ হোস্ট করবে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বুধবার তার টেলিগ্রাম চ্যানেলে লিখেছেন। ‘আমরা ভারী বৃষ্টির মধ্যে আফ্রিকা মহাদেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছি এবং এটি একটি ভাল লক্ষণ,’ তিনি বলেছিলেন, ‘আপনাকে ধন্যবাদ, বন্ধুরা, এবং আমরা আগামী বছর সেন্ট পিটার্সবার্গে রাশিয়া-আফ্রিকা শীর্ষ সম্মেলনে আপনার জন্য অপেক্ষা করছি।’

আফগানিস্তানের সম্পদ মুক্ত করার আহবান রাশিয়ার : অবৈধভাবে আটকে রাখা আফগানিস্তানের জাতীয় সম্পদ মুক্ত করে দেয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহবান জানিয়েছে রাশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-মুখপাত্র ইভান নেচায়েভ বুধবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন। ‘আমাদের পক্ষ থেকে, আমরা আবারও (আফগানিস্তানের) জাতীয় সম্পদ তাদের জন্য মুক্ত করে দেয়ার প্রয়োজনীয়তার দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি,’ ২৬ জুলাই তাসখন্দে অনুষ্ঠিত আফগানিস্তানের আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ফলাফলের বিষয়ে মন্তব্য করে রাশিয়ান ক‚টনীতিক বলেছিলেন।

ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করেছে রুশ যুদ্ধবিমান : গতকাল রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট-জেনারেল ইগর কোনাশেনকভ জানিয়েছেন, ইউক্রেনের বিশেষ সামরিক অভিযানে ক্রামতোর্স্কের কাছে একটি ইউক্রেনীয় এস-৩০০ বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র লঞ্চার ধ্বংস করেছে একটি রুশ সু-৩৫এস ফাইটার। রাশিয়ান যুদ্ধ বিমান, ক্ষেপণাস্ত্র এবং আর্টিলারি সৈন্যরা ইউক্রেনের বিশেষ সামরিক অভিযানে গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে ডোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিক এবং নিকোলায়েভ অঞ্চলে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর ছয়টি গোলাবারুদ ডিপোতে আঘাত করেছে, কোনাশেনকভ রিপোর্ট করেছেন। মুখপাত্র বলেছেন, ‘ডোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের সেভার্সক, প্যারাস্কোভিয়েভকা এবং কনস্টান্টিনোভকা, নিকোলায়েভ অঞ্চলের তেরনোভকা এবং জোভটনেভয়ে শহরের বসতিগুলির এলাকায় ছয়টি গোলাবারুদ ডিপো ধ্বংস করা হয়েছে।’

ইউক্রেনের বিষয়ে মার্কিন তথ্যকে ভুয়া হিসাবে বিবেচনা করা উচিত : ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ পরামর্শ দিয়েছেন যে, ইউক্রেনে মস্কোর বিশেষ অভিযানের সময় মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলিতে রাশিয়ান ক্ষয়ক্ষতির বিভিন্ন তথ্য ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এসব খবরকে জাল খবর হিসাবে বিবেচনা করা উচিত। ‘এটি মার্কিন প্রশাসনের একটি বিবৃতি নয়, এটি একটি সংবাদপত্রের একটি নিবন্ধ। আজকাল এমনকি সবচেয়ে সম্মানিত সংবাদপত্রগুলিও সব ধরণের ভুয়া খবর ছড়ানোর ঊর্ধ্বে নয়,’ বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ক্রেমলিন কর্মকর্তা বলেছেন।

‘দুর্ভাগ্যবশত, এই অনুশীলনটি প্রায়শই সম্মুখীন হচ্ছে,’ তিনি যোগ করেছেন। পুতিনের প্রেস সেক্রেটারি পরামর্শ দিয়েছিলেন, ‘তাদের সাথে এভাবেই আচরণ করা উচিত।’ সূত্র : তাস, নোভায়াগ্যাজেটা, এক্সিওস, এপি, আল-জাজিরা।

 

 

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর