,

1656745428_99999999

স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ উত্তাল করাচী

হাওর বার্তা ডেস্কঃ পাকিস্তানের রাজধানী করাচীতে দক্ষিণ কোরীয় মোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং কর্তৃক স্থাপিত একটি বিলবোর্ডে মুহাম্মদ (স:)’কে ‘অপমান’ করার অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনার পর বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠেছে রাজধানী শহরটি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে’র খবরে জানা যায়, করাচীর এক শপিং মলের বাইরে স্যামসাংয়ের স্থাপিত একটি ডিভাইস থেকে হজরত মুহাম্মদ (স:)’কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য ভেসে ওঠার অভিযোগ ওঠে। তাতেই ক্ষোভের আগুন জ্বলে ওঠে শহরটির বাসিন্দারা।

প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু করেন বহু মানুষ। ভেঙে ফেলা হয় মুঠো ফোন নির্মাতা সংস্থাটির বিলবোর্ড। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

বিক্ষোভের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শপিং মল থেকে ওয়াই-ফাই ডিভাইসটি সরিয়ে ফেলে পুলিশ।

করাচী পুলিশের সাইবার অপরাধ দমন শাখার গোয়েন্দারা জানান, ইতোমধ্যে স্যামসাংয়ের ২৭ জন কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ডিভাইসটি ইন্সটল করার জন্য কে বা কারা দায়ী তা উদঘাটনে তদন্ত চলছে।

এ ঘটনায় নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে বিবৃতি প্রকাশ করে স্যামসাং কর্তৃপক্ষ। টুইটারে প্রকাশিত বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা তাদের উদ্দেশ্য নয়। এক্ষেত্রে সর্বদা নিরপেক্ষ অবস্থান গ্রহণ করে সংস্থাটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘‘প্রতিটি ধর্মকেই আমরা সমান ভাবে সম্মান করি। একইভাবে ইসলাম ধর্মকেও সম্মান করি।’’ ঘটনা উদঘাটনে সংস্থাটিও একটি তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা যায় বিবৃতিতে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর