,

1642332796.President_Parliament

সরকারি অর্থের অপব্যবহার ঠেকাতে বললেন রাষ্ট্রপতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সরকারি অর্থের অপব্যবহার রোধ করতে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হতে বলেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) একাদশ জাতীয় সংসদের ২০২২ সালের প্রথম অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে এ কথা বলেন তিনি।

‘সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে প্রকল্প বাস্তবায়ন শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে। ’

স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতামূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, ‘সর্বোপরি সরকারি সকল কার্যক্রমে জনগণের যথাযথ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিমূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠা করে গণতন্ত্রকে অধিক কার্যকর করতে হবে। ’

ষড়যন্ত্রকারীদের বিষয়ে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর নীতির কারণে দেশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে, যা উন্নয়নের পূর্বশর্ত। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ক্ষেত্রে বিশ্বের জন্য একটি অনন্য উদাহরণ। দেশের সকল সম্প্রদায়ের মানুষ যাতে সম্প্রীতি সহকারে স্ব-স্ব ধর্ম চর্চা করতে পারে সে বিষয়ে সরকার সচেষ্ট রয়েছে। ’

তিনি বলেন, ‘মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টানসহ সকল সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসবসমূহ নির্বিঘ্নে যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণভাবে উদ্যাপন করা হচ্ছে। তথাপি ধর্মের নামে কোনো ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী যাতে দেশের স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করতে না পারে সে দিকে আমাদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। ’

সময় সাশ্রয়ের জন্য মূল ভাষণের পরিবর্তে ভাষণের সংক্ষিপ্ত অংশ সংসদে পাঠ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রায় ৪ হাজার ৭০০ শব্দের সংক্ষিপ্ত ভাষণে কয়েকটি বিষয়ে দিক-নির্দেশনার পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন তিনি।

রাষ্ট্রপতির ভাষণের সময় জাতীয় সংসদে উপস্থিত ছিলেন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা। জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর