,

537821_141

১৪১ দিন ধরে অনশনে থাকা ফিলিস্তিনি বন্দীকে মুক্তি দিতে রাজি হয়েছে ইসরায়েল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ অভিযোগ ছাড়াই আটক হওয়ার প্রতিবাদে ১৪১ দিন ধরে অনশনে থাকা ফিলিস্তিনি এক বন্দীকে মুক্তি দিতে রাজি হয়েছে ইসরায়েল। ইসরায়েলের সঙ্গে একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর শর্তে আগামী মাসে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। ওই ব্যক্তির আইনজীবী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

৪০ বছর বয়সী হিশাম আবু হাউয়াশসহ আরও চারজন অনশন করছেন ইসরায়েলের কারাগারে বন্দী থাকা অবস্থায়। এই পাঁচজনের মধ্যে কাইদ সবচেয়ে বেশি সময় ধরে অনশনে আছেন। অপর তিনজন অনশনরত ফিলিস্তিনি বন্দি হচ্ছেন আলা আরাজ, আইয়াদ হুরেইমি এবং লুয়ায়ি আল-আসগর। ইসরায়েলের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ডিটেনশন পলিসি বা বিনা বিচারে আটক রাখার নীতির প্রতিবাদে অনশন করছেন তারা।

হিশাম আবু হাউয়াশের আইনজীবী জাওয়াদ বাউলস স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) জানান, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি ইসরায়েল তাকে মুক্তি দিতে রাজি হলে তিনিও অনশন ভাঙতে সম্মত হন।

তবে ইসরায়েলের কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

 

ফিলিস্তিনিরা আবু হাওয়াশের মুক্তির দাবিতে অধিকৃত পশ্চিম তীর এবং অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা জুড়ে সমাবেশ করছেন দীর্ঘদিন ধরে। এই ফিলিস্তিনি ইসরায়েলের হেফাজতে মারা গেলে দেশটির বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপের হুমকিও দেন তারা। তার পরিবারও মৃত্যুর শঙ্কার কথা জানিয়ে তাকে মুক্তির দাবি জানিয়ে আসছিল।

এর আগে দীর্ঘদিন ধরে অনশনে থাকায় আবু হাওয়াশের মৃত্যুর শঙ্কা করা হচ্ছিল। কিছুদিন আগে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু ইসরায়েল ফিলিস্তিনি বন্দীদের মুক্তি না দিলে তিনি অনশন ভাঙতে নারাজ।

জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টিফেন দুজেরিক আবু হাওয়াশের সঙ্গে ইসরায়েলের এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছেন।

১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের সময় পশ্চিম তীর দখল করে নেয় ইসরায়েল। এর পর থেকে বিভিন্ন দফায় সেখানে বসতি স্থাপন করেছে দেশটি। পশ্চিম তীরে বর্তমানে প্রায় ছয় লাখ ইসরায়েলি ইহুদির বাস। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী এটাকে অবৈধ বলে বিবেচনা করা হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর