,

2CM2H1E.max-760x504-1

ঘনিষ্ঠ পুরুষ সঙ্গী ছাড়া আফগানের নারীদের ভ্রমণ নয়

হাওর বার্তা ডেস্কঃ স্বল্প দূরত্ব ছাড়া অন্য কোথাও ভ্রমণ করতে চান এমন নারীরা ঘনিষ্ঠ পুরুষ স্বজনকে সাথে না নিলে বাইরে ভ্রমণ করতে পারবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছে আফগানিস্তানের নতুন ক্ষমতাসীন শাসকগোষ্ঠী তালেবান। রোববার দেশটির পূণ্যের প্রচার ও পাপপ্রতিরোধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় নতুন এই নির্দেশনা জারি করেছে

একই সঙ্গে যে নারীরা ইসলামিক হিজাব পরবেন কেবলমাত্র তাদের গাড়িতে পরিবহনের সুযোগ দিতে দেশটির সব যানবাহনের মালিকদের প্রতিও আহ্বান জানিয়েছে তালেবান।

রোববার ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাদেক আকিফ মুজাহির বলেছেন, ৭২ কিলোমিটারের বেশি ভ্রমণকারী নারীদের সঙ্গে যদি পরিবারের কোনও ঘনিষ্ঠ সদস্য না থাকেন, তাহলে তাদের কোনও যানবাহনেই ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হবে না। আরও নির্দিষ্ট করে তিনি বলেছেন, এই ভ্রমণের সময় অবশ্যই নারীর সঙ্গে একজন ঘনিষ্ঠ পুরুষ স্বজন থাকতে হবে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন নেটওয়ার্কে আফগান পূণ্যের প্রচার ও পাপপ্রতিরোধ মন্ত্রণালয়ের এই বিবৃতি ছড়িয়ে পড়েছে। কয়েক সপ্তাহ আগে নারীরা অভিনয় করেছেন এমন নাটক এবং সোপ অপেরার প্রদর্শন বন্ধে আফগানিস্তানের সব টেলিভিশন চ্যানেলকে নির্দেশ দেওয়ার পর নতুন এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

এছাড়া নারী টিভি সাংবাদিকদের উপস্থাপনার সময় হিজাব পরার আহ্বান জানিয়েছে আফগান এই মন্ত্রণালয়। সাদেক আকিফ মুজাহির বলেছেন, যে নারীরা যানবাহনে চলাচল করতে চান তাদের হিজাব পরতে হবে। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় যানবাহনে গান বাজানো বন্ধ করতেও বলা হয়েছে।

চুল থেকে মুখ বা পুরো শরীর ঢেকে রাখতে ব্যবহৃত হিজাবের ব্যাপারে তালেবানের ব্যাখ্যা পরিষ্কার নয়। আফগান নারীদের বেশিরভাগই ইতোমধ্যে মাথায় স্কার্ফ পরা শুরু করেছেন। ১৯৯০ এর দশকের শাসনের তুলনায় কিছুটা নমনীয়তার প্রতিশ্রুতি দিলেও গত আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসার পর নারী এবং মেয়েদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে তালেবান।

চলতি মাসের শুরুর দিকে দেশটির ইসলামি এই গোষ্ঠী তাদের সর্বোচ্চ নেতার নামে একটি ডিক্রি জারি করে। এতে নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় তালেবানের সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেওয়া হয়। তবে মেয়েদের শিক্ষার সুযোগ দেওয়ার ব্যাপারে কোনও কিছুই উল্লেখ করা হয়নি সেই ডিক্রিতে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর