,

elon-musk-taxes

ইলন মাস্ক মুখ খুললেন কর দেওয়া নিয়ে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বিশ্বের শীর্ষ ধনী টেসলা ও স্পেসএক্সের মালিক ইলন মাস্ক। বর্তমানে তার সম্পদের পরিমাণ ১৮ হাজার ৫০০ কোটি ডলার। চলতি বছর তিনি ১১ বিলিয়ন অর্থাৎ ১১শ কোটি ডলার কর দেবেন বলে জানিয়েছেন। বিষয়টি নিজেই তিনি টুইট বার্তায় জানান। খবর বিবিসির।

ইলন মাস্ক কত কর দেন এবং কর ফাঁকি দেন কিনা এসব বিষয় নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে আলোচনা। এর মাঝেই নিজের কর দেওয়ার বিষয়টি জানিয়ে দিলেন এই ধনকুবের।

 

চলতি সপ্তাহের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাট সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন তার টুইটারে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি ইলন মাস্কের উদ্দেশ্যে বলেন, অন্যদের থেকে সুযোগ নেওয়া বন্ধ করে ইলন মাস্কের কর প্রদান করা উচিত। এরই প্রতিক্রিয়ায় নিজের টুইটার একাউন্টে কর দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ইলন মাস্ক।

 

গত সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী আরও একটি খবর চাওড় হয় ইলন মাস্কের। সেটি হলো বিখ্যাত মার্কিন সাময়িকী টাইমের নজরে ২০২১ সালের বর্ষসেরা ব্যক্তিত্ব বা ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ হয়েছেন টেসলার এই সিইও ইলন মাস্ক। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) এ ঘোষণা দেয় টাইম কর্তৃপক্ষ।

ম্যাগাজিনের এডিটর-ইন-চিফ এডওয়ার্ড ফেলসেনথাল জানান, একটি অস্তিত্ব সংকটের সমাধান, টেক টাইটানদের যুগের সম্ভাবনা ও সংকটগুলোকে চিত্রায়িত করা, সমাজের সবচেয়ে সাহসী পরিবর্তন পরিচালনার জন্য টাইমের নজরে ২০২১ সালের সেরা ব্যক্তিত্ব ইলন মাস্ক।

করোনাকালীন ২০২১ সাল অনেকের জন্য সর্বনাশ ডেকে আনলেও ইলন মাস্কের জন্য ভালোই যাচ্ছে। এ বছর তার কোম্পানি বিশ্বের সবচেয়ে দামী ইলেক্ট্রিক গাড়ি নির্মাতা হয়ে উঠেছে। চলতি বছর টেসলার বাজারমূল্য এক ট্রিলিয়ন বা এক লাখ কোটি ডলারের বেশি বেড়েছে, যার ফলে এর মূল্য দাঁড়িয়েছে ফোর্ড মোটর ও জেনারেল মোটরসের সম্মিলিত মূল্যের চেয়েও বেশি। একই বছর মাস্কের রকেট কোম্পানি পুরোটাই বেসরকারি ক্রু নিয়ে মহাকাশ ঘুরে এসেছে। ব্রেইন-চিপ স্টার্টআপ নিউরালিংক এবং অবকাঠামো নির্মাতা বোরিং কোম্পানির নেতৃত্বও তার হাতে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর