,

144639cop_kalerkantho_pic

শেখ হাসিনা থাকলে উন্নয়ন হয়, না থাকলে উন্নয়ন নেই

হাওর বার্তা ডেস্কঃ শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন। শেখ হাসিনা থাকলে উন্নয়ন হয়। আর শেখ হাসিনা না থাকলে উন্নয়ন নেই বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য, পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। আজ সোমবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসন ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের আয়োজনে ক্যান্সার, কিডনিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত অস্বচ্ছলদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ এবং কৃষি অধিদপ্তরের উদ্যোগে কৃষকদের মধ্যে কৃষি উপকরণ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, সম্প্রীতির এ দেশে হিন্দু-মুসলানদের মধ্যে একটি গোষ্ঠী দাঙ্গা লাগানোর অপ্রচেষ্ঠা চালায়। এটা কোনোভাবে কাম্য নয়। সম্প্রতিকালের ঘটনায় আমরা লজ্জা পেয়েছি। তিনি বলেন, পবিত্র আল কোরআনে আল্লাহ পাক বলেন, তোমরা অন্যায়ভাবে কোনো জাতির সঙ্গে দ্বন্দ্ব, সংঘাত, হিংসা বিদ্বেষ জড়িও না। এটা ইসলাম সামর্থন করে না।

পরিকল্পনামন্ত্রী অনুষ্ঠানে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে উন্নয়নের পাশাপাশি দরিদ্র ও অসহায়দের আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। এ সরকার নারী ও শিশুদের জন্য কাজ করছে। মন্ত্রী আরো বলেন, শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন। শেখ হাসিনা থাকলে উন্নয়ন হয়। আর শেখ হাসিনা না থাকলে উন্নয়ন নেই। আমার তাঁরই নেতৃত্বে দেশজুড়ে উন্নয়নের কাজ করছি। এ সরকার স্বচ্ছ ও সততা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, যার যার দায়িত্ব সঠিকভাবে লালন করতে হবে। অনেক সময় দেখা যায়, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা থাকেন না। কাজে ফাঁকি দেওয়া হয়। এটা ঠিক নয়। আমাদেরকে নিজ নিজ দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে করতে হবে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেনের পরিচালনায় বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সিদ্দিক আহমদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব।

পরে পরিকল্পনামন্ত্রী এক কোটি ৩৭ লাখ টাকা ব্যয়ে কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয় ও কৃষি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্ধোধন করেন। এসময় কৃষি পণ্য বিতরণী সভায় বক্তব্য দেন- পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক, কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার প্রমুখ। বিকেলে তিনি উপজেলার রানীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর সুনামগঞ্জের বাস্তবায়নে ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ভবনের উদ্ধোধন করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর