,

image-282432-1633894048

আফগানরা জানে কে তাদের ভালো বন্ধু: এস জয়শংকর

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর বলেছেন, ভারত গত এক দশকে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানকে কতটা সাহায্য করেছে সেই কথা মাথায় রেখে আফগানিস্তানের মানুষ জানে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে কীভাবে পার্থক্য করতে হয়। তিনি বলেন, আফগান জনগণ জানে যে ভারত তাদের জন্য কি করেছে এবং ভারত কি ধরনের বন্ধু ছিল। জয়শংকর আরো বলেছেন যে তিনি নিশ্চিত একই সময়ে পাকিস্তান তাদের জন্য যা করেছিল তা ভারতের থেকে আলাদা। খবর জি নিউজের।

তালেবান সরকার শাসনভার গ্রহণের আগে ভারত ও আফগানিস্তানের মধ্যে গভীর বাণিজ্য এবং সাংস্কৃতিক সম্পর্ক ছিল। ভারত এবং আফগানিস্তানের মধ্যে ২০১৯-২০ সালে মোট দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ১ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। ভারত ২০১৭ সালে চাবাহার বন্দর শুরু করতে সাহায্য করেছিল এবং একই বছরে ইন্ডিয়া-আফগানিস্তান ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিল যা দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক, বৈজ্ঞানিক, শিক্ষাগত, প্রযুক্তিগত এবং সাংস্কৃতিক সহযোগিতা বৃদ্ধি করে।

জয়শংকর বলেছেন যে ভারত আফগানিস্তানের জন্য যা করেছে তার ওপর ভিত্তি করে আফগান মানুষ বুঝতে পারবেন যে কারা তাদের ভালো বন্ধু ছিল। নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে পার্থক্য স্পষ্ট। জয়শংকর পাকিস্তানের সমালোচনা করে বলেন যে প্রতিটি জাতি তার প্রতিবেশিদের সঙ্গে একটি ভালো সম্পর্ক রাখতে চায়, কিন্তু এমনভাবে যা আন্তর্জাতিক নিয়মকে সম্মান করে। প্রত্যেকেই প্রতিবেশিদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে চায়।

কিন্তু আপনি এমন শর্তে বন্ধু হতে চান যা একটি সভ্য বিশ্ব গ্রহণ করবে। সন্ত্রাসবাদ সেই শর্তগুলোর মধ্যে একটি। তিনি বলেন, পাকিস্তান সন্ত্রাসকে রাষ্ট্রযন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে যা গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশিরা রয়েছে যোগাযোগ, বাণিজ্য এবং দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা বাড়ানোর জন্য। কিন্তু পাকিস্তানের সঙ্গে এরকম কিছু হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান যে ভারত এবং চীনের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শক্তি হওয়ার প্রতিযোগিতা স্পষ্ট। ফলে একটি বহুমুখী এশিয়া ছায়া বহুমুখী বিশ্বের অস্তিত্ব থাকতে পারে না। আগামী ৭৫ বছরে ভারত এবং চীন বিশ্বের প্রধান শক্তিগুলোর মধ্যে থাকবে বলে জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর