,

IMG_20210710_110225

কারফিউর ঘোষণা আসছে পারে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ দেশজুড়ে ভয়াবহভাবে বেড়ে যাওয়া করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধ কঠোর বিধিনিষেধ মানছে না মানুষ। সড়কগুলোতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারি আর গ্রেপ্তার-জরিমানা উপেক্ষা করেই লোকজন অপ্রয়োজনে বাইরে বের হচ্ছে। এতে করোনার বিস্তার ঠেকানো অসম্ভব হয়ে পড়ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এ পরিস্থিতিতে করোনা নিয়ন্ত্রণে দেশে চলমান লকডাউনের পরিবর্তে কারফিউ বা ১৪৪ ধারা জারির পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নন কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল এনসিডিসি পরিচালক ও অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন।

দেশের একটি শীর্ষ দৈনিকের সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নন কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল এনসিডিসি পরিচালক ও অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রোবেদ।

তিনি বলেন, দ্বিতীয় ধাপে কঠোর বিধিনিষেধ চলছে, কিন্তু আমরা তার কোনো ফলাফল দেখতে পাচ্ছি না। এ অবস্থায় বিকল্প ভাবাটা খুব জরুরি হয়ে পড়েছে।

‘প্রথম দুই-তিনদিন মানুষকে ঘরের মধ্যে রাখা গেলেও ধীরে ধীরে লকডাউন শিথীল হয়ে আসে। মানুষকে আর ঘরের মধ্যে রাখা যায় না। চলাফেরা, জমায়েত স্বাভাবিক হয়ে ওঠে। এতে অনেকাংশে অকার্যকর হয়ে পড়ে লকডাউন। এ অবস্থায় মানুষকে ঘরের মধ্যে রাখতে হলে কারফিউ কিংবা ১৪৪ ধারার মতো কঠোর কর্মসূচির বিকল্প দেখি না।’

প্রতিদিন বিকেলে দেশের করোনা পরিস্থিতির হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করে থাকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গতকালের (৮ জুলাই) আপডেট তথ্যে দেখা গেছে, শেষ ২৪ ঘণ্টায় ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে আরো ১৯৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে দেশে আরো ১১ হাজার ৬৫১ জনকে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে, যা এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর