,

9

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩০০ ছাড়াতে পারে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১২০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিদিন নতুন সংক্রমণের সংখ্যায় রেকর্ড গড়ার পাশাপাশি বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এরইমধ্যে চোখ কপালে তোলার মতো রিপোর্ট সামনে এনেছে বিখ্যাত মেডিকেল জার্নাল ল্যানসেট। বিশ্বের সবচেয়ে পুরাতন ও সুপরিচিত এই জার্নালটি জানিয়েছে, আগামী জুন মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে ভারতে করোনায় প্রতিদিন ২ হাজার ৩২০ জন মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে দুই লাখ ১৭ হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন প্রায় ১২০০ মানুষ। এ অবস্থায় সংক্রমণে লাগাম টানতে বেশ কয়েকটি রাজ্যে ফের লকডাউন ও রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে। করোনা বিধিনিষেধ মেনে চলার ব্যাপারে আরও বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে দেশজুড়ে।

স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে, করোনা মহামারি মোকাবিলায় ভয়াবহ ভাবে বিপর্যস্ত ভারত। তবে খারাপ সময় যেন ভারতের সামনে আরও আসছে। ল্যানসেট কোভিড-১৯ কমিশনের প্রকাশিত রিপোর্টে অন্তত সেই কথাই বলা হয়েছে।

ল্যানসেটের ওই কমিশনের এক সদস্য জানিয়েছেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ভারতে এবার প্রতিদিন ১ হাজার ৭৫০ জনের মৃত্যু হতে পারে। সংখ্যাটা বাড়তে বাড়তে আগামী জুন মাসের প্রথম সপ্তাহ নাগাদ এই সংখ্যাটি ২ হাজার ৩২০ জনের কাছাকাছি পৌঁছতে পারে।

করোনায় ভারতের অবস্থা এমনিতেই খারাপ। বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায় দেশটির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারগুলো হিমশিম খাচ্ছে। দৈনিক মৃতের সংখ্যা কয়েকদিন ধরে হাজারের ওপরে। এই অবস্থায় দৈনিক মৃতের সংখ্যা আরও বেড়ে দ্বিগুণের কাছাকাছি পৌঁছলে তা দেশটির জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে।
তবে ল্যানসেটের চাঞ্চল্যকর এই রিপোর্টে প্রয়োজনীয় পরামর্শও দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ রুখতে এখনই দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারকে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বানও জানানো হয়েছে। আর না হলে খুব তাড়াতাড়ি পুরো পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে ওই রিপোর্টে।
করোনা আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে বিশ্বে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত। টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়াল। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৩ জন। দেশে দৈনিক সংক্রমণের নতুন এই রেকর্ডে করোনায় আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৪২ লাখ ৯১ হাজার ৯১৭ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় দেশ হিসেবে ভারতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ পেরিয়েছে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে ভারতে অনেক বেশি দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে করোনাভাইরাস। পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতের দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাকেও বাড়িয়ে দিয়েছে। পর পর ৩ দিন হাজার ছাড়িয়েছে দৈনিক মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মারা গেছে এক হাজার ১৮৫ জন। মহামারি শুরুর পর দেশটিতে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৮ জন। গত মার্চের শুরুতেও দেশটির দৈনিক মৃতের সংখ্যা ছিল ১০০-১৫০ ঘরে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সকল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই বৈঠকে সংক্রমণ মোকাবিলায় রাজ্যগুলোকে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।
তবে ভারতে করোনার সংক্রমণ বাড়লেও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সারা দেশে এখনই লকডাউন ঘোষণা করা হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর