,

4

আট কোটি ভোট পেয়ে ইতিহাস বাইডেন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আট কোটির বেশি ভোট পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস।

নির্বাচিত কিছু ভোটের চূড়ান্ত গণনা বাকি থাকায় সামনের দিনগুলোতে আরও বাড়বে নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভোট। বর্তমানে তার প্রাপ্ত ভোট আট কোটি ১১ হাজার।

আর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ইতিহাসে এবারই ২য় সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ভোট সাত কোটি ৩৮ লাখের বেশি। এরপরও বাইডেনের কাছে পরাজয় স্বীকার করছেন না ট্রাম্প।

এখনও আগের সেই অবস্থানেই আটকে রয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার রাতে এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় দুর্নীতির নির্বাচনে তিনি কখনও পরাজয় মেনে নেবেন না। ভুয়া ব্যালটের কাছে তিনি কখনও পরাজয় মেনে নেবেন না। আরেক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, মনে রাখবেন, জিএসএ দুর্দান্ত এবং এমিলি মারফি দারুণ কাজ করেছে। তবে, যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট কে হবেন, সেটি জিএসএ ঠিক করে দেয় না।

সিএনএন ও এএফপি। পরাজয় না মানলেও ট্রাম্প ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি হয়েছেন। হায়াইট হাউসে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বাইডেন। অচিরেই অতি গোপনীয় গোয়েন্দা ব্রিফিং পাবেন তিনি। সেই সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ এবং কোনো উদ্যোগ নিতে চাইলে সরকারের তহবিল থেকে প্রয়োজনীয় অর্থ ব্যয়ও করতে পারবেন বাইডেন। নিয়ম অনুযায়ী নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট শুরু থেকেই এটি পাওয়ার কথা। তবে নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিতে ট্রাম্পের অস্বীকৃতি ও আইনি চ্যালেঞ্জের মতো নানা জটিলতার কারণে এবার এখন পর্যন্ত এ ব্রিফিং পাননি বাইডেন। তবে সম্প্রতি ট্রাম্প ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরুর অনুমোদন দেয়ায় এখন থেকে নিয়মিত গোয়েন্দা ব্রিফিং পাবেন বাইডেন। মঙ্গলবার ট্রাম্প প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা এপিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নির্বাচনে বাইডেন পেয়েছেন ৩০৬ ইলেকটোরাল ভোট আর ট্রাম্প ২৩২টি। ২৭০টি ভোট পেলেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়া যায়। এ বছর ডাকযোগে রেকর্ড পরিমাণ ভোট দিয়েছেন মার্কিনিরা।

এ কারণেই ভোট গণনায় অতিরিক্ত সময় লেগেছে। নির্বাচনে ভোট গণনায় দেরি হওয়ায় নির্বাচনকেই প্রশ্নবিদ্ধ করতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প। পেনসিলভানিয়া, মিশিগান ও জর্জিয়ার রাজ্যের ইলেকটোরাল ভোট সার্টিফিকেশনের পর অঙ্কের হিসেবে ট্রাম্পের কাছে নির্বাচনে জয় দাবি করার মতো অঙ্ক মেলানোর সুযোগ অবশিষ্ট নেই। পেনসিলভানিয়া নিয়ে রাজ্যের সুপ্রিমকোর্টে হেরে যাওয়ার পর সার্কিট কোর্টে গেছেন ট্রাম্প। সেখান থেকে সুপ্রিমকোর্টে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন ট্রাম্পের আইনজীবী।

আমরা ‘তৃতীয় ওবামা প্রশাসন’ গড়ব না- বাইডেন : বাইডেন বলেছেন, তার প্রশাসন তৃতীয় ওবামা প্রশাসন হবে না। তিনি মনে করেন, বিশ্ব পরিস্থিতি এবং যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান আর আগের জায়গায় নেই।

ট্রাম্পের শাসন মেয়াদে তা ব্যাপক আকারে পাল্টে গেছে। মঙ্গলবার এনবিসি নিউজের উপস্থাপক লেস্টার হল্টকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ওবামা প্রশাসনের সাবেক এ ভাইস প্রেসিডেন্ট এসব কথা বলেছেন। সম্প্রতি সম্ভাব্য মন্ত্রিসভার শীর্ষ কর্মকর্তাদের নাম ঘোষণা করেছেন বাইডেন। এর মধ্যে সাবেক ওবামা-বাইডেন প্রশাসনের কয়েক কর্মকর্তাও রয়েছেন।

সাক্ষাৎকারে হল্ট এ প্রসঙ্গ তুলে বাইডেনের কাছে জানতে চান যে তিনি ‘তৃতীয় ওবামা মেয়াদ’ গঠনের চেষ্টা করছেন কিনা। বাইডেন তা নাকচ করে দিয়ে বলেন, ‘এটা তৃতীয় ওবামা মেয়াদ নয়। ওবামা-বাইডেন প্রশাসনের সময়ে বিশ্ব পরিস্থিতি যেমন ছিল তার চেয়ে এখনকার পরিস্থিতি পুরোপুরি আলাদা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দৃশ্যপট পাল্টে দিয়েছেন।’

বাইডেন জানান, আমেরিকার সব মানুষের হয়েই প্রতিনিধিত্ব করতে চান তিনি। এমনকি ট্রাম্পকে ভোটদানকারী কোনো রিপাবলিকানকে নিজের প্রশাসনে নিয়োগ দেয়ার কথাও ভাবছেন তিনি। ‘আমি চাই এ দেশ ঐক্যবদ্ধ থাকুক’।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর