,

7

এবার ফরাসী পণ্য বয়কটের ডাক দিলেন ডা. জাকির নায়েকের

হাওর বার্তা ডেস্কঃ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানের পর এবার ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন জনপ্রিয় ইসলামিক স্কলার ডা. জাকির নায়েক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেইজে ফ্রান্সের সকল সেবা ও পণ্য বয়কট করতে সারা বিশ্বের মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
ফেসবুক পোস্টে ডা. জাকির নায়েক বলেন, ‘মহানবি হজরত মুহাম্মদ সা. কে অবমাননার কারণে আমাদের সকলের উচিৎ ফ্রান্সের পণ্য ও সেবা বর্জন করা।’
এ সময় তিনি তার পোস্টে ফ্রান্সের বিভিন্ন পণ্য ও সেবাদানকারী কোম্পানির লোগো এবং তালিকা প্রকাশ করেন। মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।
শেষ নবি মুহাম্মদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর বিতর্কিত মন্তব্য ও ফ্রান্সজুড়ে নবি অবমাননায় রীতিমতো সরগরম মুসলিম বিশ্ব। এর আগে ম্যাক্রোঁর ইসলাম এবং মুসলমানবিরোধী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে ফরাসি পণ্য বয়কটের জন্য তুরস্কের নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। প্রথমবার পণ্য বয়কটের ডাক আসে কুয়েতের বিভিন্ন মার্কেট থেকে। কাতারের ব্যবসায়ীরা ফরাসি পণ্য দোকান থেকে বের করে ফেলে দিচ্ছেন, আবার কেউ কেউ সরিয়ে নিচ্ছেন। আবার অনেকেই নতুন অর্ডার বাতিল করেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও মুসলমানদের আক্রমণ করায় ম্যাক্রোঁর নিন্দা জানিয়েছেন।
এছাড়াও ফরাসি পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রখ্যাত আলেম, সাবেক বিচারপতি মুফতি তাকি উসমানি। গত সোমবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে দেয়া এক টুইট বার্তায় তিনি দু:খ প্রকাশ করে বলেন, উভয় জাহানের নেতা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের বিরুদ্ধে ফ্রান্স ও এর রাষ্ট্রনায়কের ঘৃণ্য আচরণের পরেও আমরা কি ফরাসি পণ্য ক্রয়, বিক্রয়, ব্যবহার এবং আমদানি চালিয়ে যাব? তিনি আরো বলেন, ফ্রান্স তখনই শিক্ষা পাবে যখন পুরো ইসলামী বিশ্ব তাদের পণ্য বর্জন করবে। আমরা নিজেদের জায়গা থেকে ফ্রান্সের অসভ্যতার বিরুদ্ধে কমপক্ষে এতটুকু প্রতিবাদ তো জানাতেই পারি।
বিশ্বের বেশির ভাগ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক দেয়া হয়। সৌদিতেও বর্জনের অন্যতম টার্গেটে পরিণত হয়েছে ফরাসি সুপার মার্কেট চেইন ক্যারেফোর। ফরাসি এই সুপারমার্কেট চেইনের পণ্য বর্জনের ডাক সৌদি আরবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ট্রেন্ড হয়েছে। ভোক্তাদের এই মার্কেটের পণ্য কেনা থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সূত্র : আল জাজিরা

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর