,

8

জানুয়ারির আগেই ইমরান সরকারের পতন ঘটবে: মরিয়ম

হাওর বার্তা ডেস্কঃ জানুয়ারির আগেই ইমরান খান সরকারের পতন ঘটবে বলে মন্তব্য করছেন পাকিস্তান মুসলিম লীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ।

এমন একসময়ে তিনি এ মন্তব্য করলেন, যখন দেশটির ক্ষমতাসীন সরকারের পতন ঘটাতে বিরোধী দলগুলো প্রথমবারের মতো নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করতে যাচ্ছে।

ইমরান সরকারের সমালোচনা করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে বলেন, জেনারেল মোশররফের আমলেও পিএলএম-নওয়াজ এতটা নৃশংসতার মুখোমুখি হয়নি। আমি এই সরকারের স্বীকৃতিই দিইনি। এ সরকারকে সরকার ডাকার যোগ্যতা নেই।

তিনি বলেন, জনগণের লড়াইয়ের মুখে খানের সরকার টিকতে পারবে না। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে ঘরে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরানের পদত্যাগের দাবিতে সম্প্রতি পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলো জোট গঠন করে। সরকারবিরোধী এ জোটের নাম পাকিস্তান ডেমোক্র্যাটিক মুভমেন্ট বা পিডিএম।

১৬ অক্টোবর পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালাতে সমাবেশের ডাক দিয়েছে পিএমএল-এন। দলটির তথ্য সম্পাদক মরিয়ম আওরঙ্গজেব জানান, পুরো শহরের মানুষ সমাবেশটিতে অংশ নেবে।

বিক্ষোভ সামনে রেখে সাক্ষাৎকারে মরিয়ম বলেন, নওয়াজ শরিফের পক্ষ নিয়ে জনগণ ‘অযোগ্য ও অক্ষম’ প্রধানমন্ত্রীর পতন ঘটাবে।

তিনি আরও বলেন, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে জানুয়ারির আগেই ইমরান খান সরকারকে ঘরে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, ইমরান খান সরকারের ক্ষমতা নেই এ সমাবেশে বাধা দেয়ার। এ সরকারের চিনি, ময়দা, ওষুধ, জ্বালানি চুরি ও লুটপাটের সমাধান হবে এ সমাবেশে।

এদিকে নওয়াজ শরিফ, মরিয়ম নওয়াজসহ দলের বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করেছে পাকিস্তানের পুলিশ। সেনাবাহিনী নিয়ে মন্তব্য করায় গত সপ্তাহে লাহোরের একটি পুলিশ স্টেশনে পিএমএল-এন দলের ৪৪ নেতার বিরুদ্ধে এই মামলা হয় বলে জানায় ডন।

সরকারবিরোধী জোট পাকিস্তান ডেমোক্র্যাটিক মুভমেন্টকে (পিডিএম) আগামী ১৬ অক্টোবর পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালা শহরে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাকিস্তানের ‘দ্য ডন’ অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর