ঢাকা ১২:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

একই দিনে দুই দেশের হয়ে খেলার আজব ঘটনা

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:১৪:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০১৫
  • ৫৬৮ বার

একজন ক্রিকেটারের দুই দেশের হয়ে খেলার ইতিহাস বিরল নয়। কিন্তু একই দিনে দুই দেশের হয়ে খেলা? ২৮ বছর আগে এমনই রেকর্ড ছিল ভারতের লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকরের। মুম্বই ক্রিকেট ক্লাবে একটি প্রদর্শনী ম্যাচে পাকিস্তানের হয়ে কিছুক্ষণ ফিল্ডিং করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেটা স্বীকৃতি কোনো ম্যাচ ছিল। কিন্তু এবার স্বীকৃত লিস্ট এ ম্যাচে একই দিনে দুই দেশের হয়ে নাম লেখানোর বিরল কৃতিত্ব অর্জন করে ফেললেন ভারতের ক্রিকেটার মনদীপ সিং। রোববার ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে খেলতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দল। আর ওই ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার হয়েও ফিল্ডিং করেন ভারতের এ খেলোয়াড়। ভারতের দ্বাদশ খেলোয়াড় ছিলেন মনদীপ সিং। খাবারে বিষক্রিয়ার ফলে ওই ম্যাচের পর দক্ষিণ আফ্রিকার ১০ খেলোয়াড়কে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। কিন্তু ম্যাচ চলাকালেই তাদের ওপর বিষক্রিয়ার প্রতিক্রিয়া ছাড়াতে থাকে।
এদিন চেন্নাইয়ে তীব্র গরমে বিপর্যস্ত অবস্থা ছিল প্রোটিয়াদের। কারও পেট খারাপ, তো কারও ধরে পেশির টান। ম্যাচের এ পর্যায়ে ফিল্ডিংয়ের জন্য তাদের ১১ জন পাওয়া যাচ্ছিল না। ১১ জন পূরণের জন্য প্রথমে টিমের ভিডিও অ্যানালিস্ট কোয়েটজেনকে নামানো হয়। কিন্তু তাতেও সমস্যা মেটেনি। এরই মধ্যে আবার হ্যামস্ট্রিং চোটে পড়েন কুইন্টন ডি কক। তিনি মাঠ ছাড়লে ফের ১০ জনের দলে পরিণত হয় আফ্রিকা ‘এ’ দল। বাধ্য হয়ে তখন ভারতীয় দলের কাছে ‘ধার’ চাওয়া হয় এক জন ক্রিকেটারকে। এর কিছুক্ষণ পর দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সি পরে নামতে দেখা যায় ভারত ‘এ’ দলের দ্বাদশ খেলোয়াড় মনদীপ সিংকে।
এদিনের ম্যাচটি ভারত ‘এ’ দল ৮ উইকটে জেতে। ডি ককের ১০৮ রানে প্রথমে আফ্রিকা করে ২৪৪ রান। জবাবে ৩৭.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত ‘এ’ দল।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

একই দিনে দুই দেশের হয়ে খেলার আজব ঘটনা

আপডেট টাইম : ১১:১৪:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০১৫

একজন ক্রিকেটারের দুই দেশের হয়ে খেলার ইতিহাস বিরল নয়। কিন্তু একই দিনে দুই দেশের হয়ে খেলা? ২৮ বছর আগে এমনই রেকর্ড ছিল ভারতের লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকরের। মুম্বই ক্রিকেট ক্লাবে একটি প্রদর্শনী ম্যাচে পাকিস্তানের হয়ে কিছুক্ষণ ফিল্ডিং করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেটা স্বীকৃতি কোনো ম্যাচ ছিল। কিন্তু এবার স্বীকৃত লিস্ট এ ম্যাচে একই দিনে দুই দেশের হয়ে নাম লেখানোর বিরল কৃতিত্ব অর্জন করে ফেললেন ভারতের ক্রিকেটার মনদীপ সিং। রোববার ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে খেলতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দল। আর ওই ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার হয়েও ফিল্ডিং করেন ভারতের এ খেলোয়াড়। ভারতের দ্বাদশ খেলোয়াড় ছিলেন মনদীপ সিং। খাবারে বিষক্রিয়ার ফলে ওই ম্যাচের পর দক্ষিণ আফ্রিকার ১০ খেলোয়াড়কে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। কিন্তু ম্যাচ চলাকালেই তাদের ওপর বিষক্রিয়ার প্রতিক্রিয়া ছাড়াতে থাকে।
এদিন চেন্নাইয়ে তীব্র গরমে বিপর্যস্ত অবস্থা ছিল প্রোটিয়াদের। কারও পেট খারাপ, তো কারও ধরে পেশির টান। ম্যাচের এ পর্যায়ে ফিল্ডিংয়ের জন্য তাদের ১১ জন পাওয়া যাচ্ছিল না। ১১ জন পূরণের জন্য প্রথমে টিমের ভিডিও অ্যানালিস্ট কোয়েটজেনকে নামানো হয়। কিন্তু তাতেও সমস্যা মেটেনি। এরই মধ্যে আবার হ্যামস্ট্রিং চোটে পড়েন কুইন্টন ডি কক। তিনি মাঠ ছাড়লে ফের ১০ জনের দলে পরিণত হয় আফ্রিকা ‘এ’ দল। বাধ্য হয়ে তখন ভারতীয় দলের কাছে ‘ধার’ চাওয়া হয় এক জন ক্রিকেটারকে। এর কিছুক্ষণ পর দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সি পরে নামতে দেখা যায় ভারত ‘এ’ দলের দ্বাদশ খেলোয়াড় মনদীপ সিংকে।
এদিনের ম্যাচটি ভারত ‘এ’ দল ৮ উইকটে জেতে। ডি ককের ১০৮ রানে প্রথমে আফ্রিকা করে ২৪৪ রান। জবাবে ৩৭.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত ‘এ’ দল।