জুনিয়র এনটিআরের বাড়িতে বিলাসবহুল দুই নতুন গাড়ি

ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পীদের বিলাসবহুল গাড়ি ও স্পোর্টস বাইকের প্রতি আলাদা ভালোবাসা রয়েছে। মার্কেটে নতুন মডেলের গাড়ি বা মোটরসাইকেল এলেই তা সংগ্রহ করার চেষ্টা করেন তারা।

তেলেগু সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা জুনিয়র এনটিআরের গাড়ির প্রতি ভালোবাসা কম নয়। ‘জয় লাভা কুসা’খ্যাত এই অভিনেতা সবসময়ই ভালো ব্র্যান্ডের গাড়ি ব্যবহার করে থাকেন। জুনিয়র এনটিআরের গ্যারেজে বেশ কিছু বিলাসবহুল গাড়ি শোভা পাচ্ছে। এবার তার গ্যারেজে যুক্ত হলো আরো দুটি নতুন গাড়ি।

সিয়াসাত ডটকমের তথ্য অনুসারে, জুনিয়র এনটিআর বিলাসবহুল দুটো নতুন গাড়ি কিনেছেন। একটির মডেল হলো— মার্সিডিজ-বেঞ্চ মেবিচ এস-ক্লাস। কালো রঙের এ গাড়ির মূল্য ৪ কোটি ২৩ লাখ রুপি। দ্বিতীয় গাড়িটি হুন্দাই ইলেকট্রিক আয়নিক ৫ মডেলের। কালোর রঙের এ গাড়ির মূল্য ৫৫ লাখ রুপি। সব খরচ মিলিয়ে এ গাড়ি দুটির জন্য ৫ কোটি রুপির বেশি ব্যয় করেছেন জুনিয়র এনটিআর।

জুনিয়র এনটিআর প্রথম ভারতীয় যে ল্যাম্বরগিনি উরুস গ্রাফাইট ক্যাপসুল মডেলের গাড়ির মালিক হন। টাইমস অব ইন্ডিয়ার তথ্য অনুসারে, ২০২১ সালের মার্চে ল্যাম্বরগিনি উরুস পার্ল ক্যাপসুল এডিশনের গাড়ি ভারতে লঞ্চ করে। তখন এর মূল্য ছিল ৩ কোটি ১৫ লাখ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার ২৫০ টাকা)। ল্যাম্বরগিনি উরস গ্রাফাইট ক্যাপসুল এডিশনের গাড়িটি আরো আপডেট ভার্সনের। স্বাভাবিকভাবে আগের মডেলের চেয়ে এর মূল্য বেশি।

জুনিয়র এনটিআর অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘রুদ্রম রণম রুদিরাম’ বা ‘ট্রিপল আর’। এস এস রাজামৌলি পরিচালিত এই সিনেমার গল্প কমারাস ভীমা ও আলুরি সীতারামা রাজু নামের দুই বীর যোদ্ধাকে নিয়ে। গত বছর মুক্তি পায় এটি। বক্স অফিসে ঝড় তোলার পাশাপাশি সমালোচকদেরও প্রশংসা কুড়ায়।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর