শান্তির খোঁজে সৌদি আরবে জেলেনস্কি

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গেবৈঠক করেছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। আজ বুধবার এই বৈঠকে রুশ আগ্রাসন বন্ধ করে শান্তি আলোচনা শুরুতে সৌদি আরবকে কার্যকরী ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ইউক্রেনের রুশ আগ্রাসনের দুই বছর পেরিয়ে গেছে। ২০২২ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে স্থল অভিযান শুরু করে রাশিয়া। দীর্ঘ এই সময়ে দুই পক্ষের প্রচুর সেনা হতাহতের শিকার হয়েছেন। মারা গেছেন অনেক বেসামরিকও। তবে এখনো পর্যন্ত যুদ্ধ থামার কোনো লক্ষ্মণ নেই। তবে আগের চেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে রাশিয়া। যুদ্ধের প্রথম বছরে ইউক্রেনের অপ্রত্যাশিত প্রতিরোধে কিছুটা দিশেহারা হয়ে যায় রুশ সেনারা। তবে সাম্প্রতিক আভদিভকা শহর দখল ও নাভালনিস ও প্রিগোজিনের মৃত্যু রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের অবস্থানকে আরও সংহত করেছে।

এমন অবস্থায় সৌদি আরব গেলেন জেলেনস্কি। সৌদি যুবরাজ এবং প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধ এবং যুদ্ধবন্দিদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা করেন তিনি।

জেলেনস্কির ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, জেলেনস্কি ইউক্রেনে আগ্রাসন বন্ধ এবং রাশিয়া থেকে যুদ্ধবন্দিদের ফিরিয়ে আনার জন্য চাপ দেওয়ার প্রয়াসে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের (এমবিএস) সঙ্গে সৌদি আরবে আলোচনা করেছেন।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ইউক্রেনে ন্যায় পন্থায় শান্তি ফিরিয়ে আনতে সৌদি আরবের প্রচেষ্টা উল্লেখযোগ্য। সৌদি আরবের নেতৃত্বে একটি ন্যায্য সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে।

অন্যদিকে সৌদ রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) বলেছে, ইউক্রেন-রাশিয়া সংকট সমাধানের লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার জন্য সৌদির আগ্রহ এবং সমর্থন নিশ্চিত করেছেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর