ঢাকা ০৮:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আল-শিফা হাসপাতালে ইসরাইলি বাহিনীর অভিযান

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১২:৪৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩
  • ৪৭ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আল-শিফা হাসপাতালে প্রবেশ করেছে ইসরাইলি বাহিনী। এর ফলে হাসপাতালে থাকা রোগী, চিকিৎসক, বাস্তুচ্যুতসহ প্রায় সাড়ে সাত হাজার লোক ঝুঁকি এবং বিপদে পড়েছে। এছাড়া, উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী ক্যাম্পে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অর্ধশতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। অপরদিকে, গাজায় গণহত্যা ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

গাজায় লাগাতার হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। বেশ কয়েকদিন অবরুদ্ধ রাখার পর গাজা উপত্যকার আল-শিফা হাসপাতালে প্রবেশ করেছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী। ইসরাইলি সামরিক বাহিনী বেশ কয়েকটি এক্স পোস্টের মাধ্যমে আল-শিফা হাসপাতালে তাদের প্রবেশ করার কথা জানিয়েছে।

তারা জানায়, হাসপাতালের ভেতরে থাকা হামাসের সামরিক কমান্ড সেন্টার ধ্বংস করার জন্য তারা সেখানে প্রবেশ করছে। তবে হাসপাতালে তাদের কোনো যোদ্ধা নেই বলে জানিয়েছে হামাস।

হাসপাতালটির কর্মীদের তথ্যানুসারে, হাসপাতালে এখনো ৬৫০ জন রোগী রয়েছেন। আর পাঁচ থেকে সাত হাজারের মতো বাস্তুচ্যুত মানুষ ইসরাইলি স্নাইপার ও ড্রোন হামলার কারণে হাসপাতালের ভেতরে আটকা পড়েছে। এছাড়াও এক হাজারেরও বেশি চিকিৎসাকর্মী ভেতরে আটকা পড়েছে; তবে তারা জ্বালানি ও ওষুধ সংকটের কারণে রোগীদের কোনো চিকিৎসা দিতে পারছেন না বলে জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পাশাপাশি, জাবালিয়া রিফিউজি ক্যাম্পের ১২টি বাড়ি লক্ষ্য করে ভোরে এ বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। গত কয়েক দিন ধরে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর স্থল হামলা জোরদার হওয়ার পর  থেকে গাজার উত্তরাঞ্চলে সংঘাতের তীব্রতা বেড়েছে।

এদিকে, গাজা উপত্যকায় পারমাণবিক বোমা ইসরাইল-হামাস যুদ্ধের একটি বিকল্প বলে মন্তব্য করায় ইসরাইলি ঐতিহ্যবিষয়ক-মন্ত্রীর নিন্দা জানিয়েছে চীন, ইরান এবং কয়েকটি আরব দেশ। তারা এই মন্তব্যকে বিশ্বের জন্য হুমকি বলে অভিহিত করেছে।

আর, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ও তার মন্ত্রিসভার দুই সদস্যের বিরুদ্ধে গাজা উপত্যকায় গণহত্যা প্রতিরোধে ব্যর্থতার জন্য মামলা করা হয়েছে। নিউইয়র্কের নাগরিক স্বাধীনতা গোষ্ঠী সেন্টার ফর কনস্টিটিউশনাল রাইটসের দায়ের করা মামলাটির অন্য দুই জন হলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

আল-শিফা হাসপাতালে ইসরাইলি বাহিনীর অভিযান

আপডেট টাইম : ১২:৪৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আল-শিফা হাসপাতালে প্রবেশ করেছে ইসরাইলি বাহিনী। এর ফলে হাসপাতালে থাকা রোগী, চিকিৎসক, বাস্তুচ্যুতসহ প্রায় সাড়ে সাত হাজার লোক ঝুঁকি এবং বিপদে পড়েছে। এছাড়া, উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী ক্যাম্পে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অর্ধশতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। অপরদিকে, গাজায় গণহত্যা ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

গাজায় লাগাতার হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। বেশ কয়েকদিন অবরুদ্ধ রাখার পর গাজা উপত্যকার আল-শিফা হাসপাতালে প্রবেশ করেছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী। ইসরাইলি সামরিক বাহিনী বেশ কয়েকটি এক্স পোস্টের মাধ্যমে আল-শিফা হাসপাতালে তাদের প্রবেশ করার কথা জানিয়েছে।

তারা জানায়, হাসপাতালের ভেতরে থাকা হামাসের সামরিক কমান্ড সেন্টার ধ্বংস করার জন্য তারা সেখানে প্রবেশ করছে। তবে হাসপাতালে তাদের কোনো যোদ্ধা নেই বলে জানিয়েছে হামাস।

হাসপাতালটির কর্মীদের তথ্যানুসারে, হাসপাতালে এখনো ৬৫০ জন রোগী রয়েছেন। আর পাঁচ থেকে সাত হাজারের মতো বাস্তুচ্যুত মানুষ ইসরাইলি স্নাইপার ও ড্রোন হামলার কারণে হাসপাতালের ভেতরে আটকা পড়েছে। এছাড়াও এক হাজারেরও বেশি চিকিৎসাকর্মী ভেতরে আটকা পড়েছে; তবে তারা জ্বালানি ও ওষুধ সংকটের কারণে রোগীদের কোনো চিকিৎসা দিতে পারছেন না বলে জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পাশাপাশি, জাবালিয়া রিফিউজি ক্যাম্পের ১২টি বাড়ি লক্ষ্য করে ভোরে এ বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। গত কয়েক দিন ধরে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর স্থল হামলা জোরদার হওয়ার পর  থেকে গাজার উত্তরাঞ্চলে সংঘাতের তীব্রতা বেড়েছে।

এদিকে, গাজা উপত্যকায় পারমাণবিক বোমা ইসরাইল-হামাস যুদ্ধের একটি বিকল্প বলে মন্তব্য করায় ইসরাইলি ঐতিহ্যবিষয়ক-মন্ত্রীর নিন্দা জানিয়েছে চীন, ইরান এবং কয়েকটি আরব দেশ। তারা এই মন্তব্যকে বিশ্বের জন্য হুমকি বলে অভিহিত করেছে।

আর, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ও তার মন্ত্রিসভার দুই সদস্যের বিরুদ্ধে গাজা উপত্যকায় গণহত্যা প্রতিরোধে ব্যর্থতার জন্য মামলা করা হয়েছে। নিউইয়র্কের নাগরিক স্বাধীনতা গোষ্ঠী সেন্টার ফর কনস্টিটিউশনাল রাইটসের দায়ের করা মামলাটির অন্য দুই জন হলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন।