,

হরিণ শিকার’র দায়ে সালমানকে হত্যার পরিকল্পনা!

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বলিউড সুলতান সালমান খানকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল বলে সম্প্রতি জানিয়েছে ভারতের পুলিশ। আর এ ষড়যন্ত্রে যুক্ত ছিল এক নাবালক! সম্প্রতি পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দপ্তরে বিস্ফোরণ তদন্তে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের মধ্যে একজন ওই নাবালক বলে জানা গেছে।

চলতি বছরের ২৯ মে আত্মীয়ের বাড়ি যাওয়ার পথে আততায়ীদের গুলিতে নিহত হন পাঞ্জাবি গায়ক সিধু মুসেওয়ালা। তাকে হত্যার অভিযোগ ওঠে গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোইর দলের ওপর। শোনা যায়, হত্যায় দায় বিষ্ণোইর গ্যাং স্বীকারও করে নিয়েছে। এরপরই শোনা যায় সালমান খানও বিষ্ণোই গ্যাংয়ের টার্গেট ছিল।

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ উঠেছিল সালমান খানের বিরুদ্ধে। তারপর থেকেই সালমানকে নিজের শত্রু হিসেবে মনে করে লরেন্স বিষ্ণোই। সেই কারণেই নাকি তিনি সালমান খানকে হত্যার ছক কষেন। এ কাজে এক শার্প শুটারকেও নিয়োগ করা হয়েছিল।

এদিকে, গত কয়েকদিন ধরে সালমান খানের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। নিজের জন্য বুলেটপ্রুফ গাড়িও কিনেছেন সালমান। এর মধ্যেই নাবালক অভিযুক্তকে গ্রেফতারের খবর পাওয়া গেলো।

গত ৯ মে মোহালিতে পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দপ্তরে বিস্ফোরণ হয়। জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে নিজের বাসভবনে জরুরি বৈঠক ডাকেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান। গুরুত্ব দিয়ে বিষয়টির তদন্ত শুরু হয়। তাতেই ওই নাবালক ও অর্শদীপ সিং নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর