,

তিউনিসিয়াকে উড়িয়ে দিল ব্রাজিল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কাতার বিশ্বকাপের আগে নিজেদের শক্তিমত্তা মাঠে ফুটিয়ে তুলল ব্রাজিল। নীল জার্সিতে গোলের বন্য বইয়ে দিলেন নেইমার-রাফিনিয়ারা।

প্যারিসে মঙ্গলবার রাতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে তিউনিসিয়াকে ৫-১ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল।

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের এই দাপুটে জয় হৃদয় ভরে গেছে সেলেকাও সমর্থকদের। গোলের দেখা পেয়েছেন দলের সেরা তারকা নেইমার, জোড়া গোল করেছেন রাফিনিয়া, একটি করে গোল করেছেন রিচার্লিসন ও পেদ্রো।

গত বছরের জুলাইয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে হারের পর থেকে এই নিয়ে টানা ১৫ ম্যাচে অপরাজিত রইল তিতের দল। এর মধ্যে তাদের জয় ১২টি, ড্র তিনটি।

ফিফা র‍্যাংকিংয়ে ৩০তম স্থানে থাকা তিউনিসিয়াকে শুরু থেকে চেপে ধরে এক নম্বর দল ব্রাজিল।

একাদশ মিনিটেই সফলতা আসে। মাঝমাঠ থেকে কাসেমিরোর উঁচু করে বাড়ানো বলে ডি-বক্সে লাফিয়ে হেডে জাল খুঁজে নেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড রাফিনিয়া।

তবে এর সাত মিনিটের মধ্যেই দলকে সমতায় ফেরান তিউনিসিয়ার  মনতাসার তালবি। ১৮তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে সতীর্থের ফ্রি-কিকে ডি-বক্সে লাফিয়ে হেডে বল জালে জড়ান এ ডিফেন্ডার।

সমতাও এক মিনিটের বেশি টেকেনি। ১৯তম মিনিটেই ডান দিক থেকে রাফিনিয়ার পাসে ডি-বক্সে ঢুকে ডান পায়ের শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন রিচার্লিসন। এ ফরোয়ার্ডের গোলে ব্যবধান ২-১ হয়।

২৭তম মিনিটে কাসেমিরোকে ডি-বক্সে তিউনিসিয়ার এক ডিফেন্ডার ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সফল স্পট-কিকে ব্যবধান ৩-১ করেন নেইমার।

এরপর অনেকটা সময় গোলের দেখা মিলেনি। ৪০তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে তিউনিসিয়ার জালে হালি পূরণ করেন রাফিনিয়া। বাঁ দিক থেকে নেইমার ডি-বক্সে খুঁজে নেন রিচার্লিসনকে। তার পাসে বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ে শট নেন  রাফিনিয়া। ভাগ্যগুণে তা পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ায়।

৪-১ স্কোরলাইনে বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে লুকাস পাকেতার জায়গায় ভিনিসিউস জুনিয়র ও রিচার্লিসনকে তুলে পেদ্রোকে নামান ব্রাজিল কোচ তিতে।

তবে তাতে গোল আসছিল না। ৭৪তম মিনিটে গোলের দেখা পান পেদ্রো। ডি-বক্সে দারুণ ভলিতে জাতীয় দলের হয়ে প্রথম গোল করেন ফ্লামেঙ্গোর এই ফরোয়ার্ড।

এরপর আর কোনো গোলের দেখা না মিললে রেফারির শেষ বাঁশিতে ৫-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।

বিশ্বকাপের আগে এটিই ছিল ব্রাজিলের শেষ ম্যাচ। টানা ৭ জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাতারে যাবে তিতের শিষ্যরা।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর