,

download (4)

মুহাম্ম’দ (সা.) এর পোশাক দেখতে ইস্তাম্বুলে হাজারো মানুষের ঢল

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মহানবী হযরত মুহাম্ম’দ (সা.) এর ব্যবহৃত পোশাক দেখতে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে হিরকা-ই শেরিফ ম’স’জিদে হাজারো মানুষ ভিড় করেছেন। ক’রো’নাভাই’রাস মহামা’রিতে বন্ধ হয়ে যাওয়া এই প্রদর্শনী দুই বছর পর শুক্রবার (২২ এপ্রিল) আবারও শুরু হয়েছে।

তুরস্কের গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ বলছে, হযরত উওয়াইস আল-কারনিকে (রা.) পোশাকটি হযরত মুহাম্ম’দ (সা.) উপহার হিসেবে পাঠিয়েছিলেন। তার বংশধররা এটি দীর্ঘ ১৪শ বছর ধরে যত্ন সহকারে সংরক্ষণ করে আসছেন। রাসুল (সা.) এর পোশাক দেখতে ওই ম’স’জিদে হাজারো মানুষ ভিড় করছেন।

তুরস্কে ক’রো’না সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় গত দুই বছর ধরে এই পোশাকের প্রদর্শনী বন্ধ ছিল। ক’রো’নাভাই’রাসের প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে আসায় দুই বছর পর পুনরায় পোশাক প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। মু’সলিম ধ’র্মাবলম্বীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এ নিদর্শন শুধু পবিত্র রমজান মাসে প্রদর্শন করা হয়।

শুক্রবার জুমা’র নামাজের আগে কিছু মানুষকে ম’স’জিদের ভেতরে কাচে মোড়ানো বাক্সে পোশাকটি দেখার সুযোগ দেওয়া হয়। বাইরে আলাদা আলাদা সারিতে হাজারো না’রী ও পুরুষ ম’স’জিদের ভেতরে প্রবেশের জন্য অ’পেক্ষায় ছিলেন।

মানুষের এত ভিড় থাকার পরও কারও কাছ থেকে কোনো অ’ভিযোগ পাওয়া যায়নি। দর্শনার্থীরা ই’স’লা’মের সবচেয়ে পবিত্র ব্যক্তিত্বের ব্যবহৃত পোশাক দেখার সুযোগ পেয়ে খুশি। অনেকেই পোশাকটি দেখে কা’ন্নায় ভে’ঙে পড়েন। আবার কেউ কেউ নামাজ পড়েন। ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত পোশাকটির প্রদর্শনী চলবে।

পোশাক দেখতে ম’স’জিদে আসা লায়লা কাহরামান বলেন, রাসুল (সা.) এর ব্যবহৃত পোশাক দেখতে পাওয়ার খুশিতে গতরাতে আমি ঘুমাতে পারিনি। আমি গত দুই বছর ধরে এটা দেখার অ’পেক্ষায় ছিলাম।

লাইলা তার ৯ বছর বয়সী ছে’লে ওম’র ফারুককে নিয়ে ম’স’জিদে এসেছিলেন রাসুল (সা.) এর ব্যবহৃত পোশাক দেখতে। সে বলে, আমি রাসুলকে (সা.) অনেক ভালোবাসি। আমি এখানে আসতে পেরে খুবই খুশি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর