,

3

উন্মুক্ত কনসার্ট না হলে স্বস্তি নেই

হাওর বার্তা ডেস্কঃ জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জানিতা আহমেদ ঝিলিক। গানের নানা মাধ্যমেই তার ব্যস্ততা। সমসাময়িক বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন রণব্যস্ততা

করোনা পরিস্থিতি বেশ স্বস্তিজনক। তাই আগের তুলনায় কাজ বেড়েছে। বিশেষ করে ইনডোর কনসার্টগুলো শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে একাধিক কনসার্ট করেছি। সর্বশেষ করলাম ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত শোতে। আগামী ২২ তারিখ করব সোনারগাঁও হোটেলে, চিকিৎসকদের আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে। এছাড়া এরমধ্যে বেশকিছু টিভি শো করেছি। লাইভ অনুষ্ঠান ছিল বিটিভি, এনটিভি ও এশিয়ান টিভিতে। রেকর্ডিং অনুষ্ঠান করেছি আরটিভি ও ইটিভিতে।ওপেন এয়ার কনসার্ট

আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে শিল্পীরা ততক্ষণ স্বস্তি পাবে না যতক্ষণ ওপেন এয়ার কনসার্ট শুরু না হবে। কারণ, বেশির ভাগ শিল্পী কলাকুশলী আসলে কনসার্টের ওপরই নির্ভরশীল। কিন্তু এখনো ওপেন কনসার্টের অনুমতি মেলেনি। এই যে, সামনে পূজা আসছে। পূজার সময় কনসার্ট নিয়ে কী পরিমাণ ব্যস্ত থাকি বলে বোঝাতে পারব না। কিন্তু এবার মঞ্চ পেতে কনসার্টের আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা থাকায় কোনো ব্যস্ততাই নেই। শীত আসছে, কনসার্টের মৌসুম। জানি না, এবার শীতেও কনসার্টের আসর জমবে কি না।প্লেব্যাক

সিনেমা বেশি নির্মাণ করলে সবাই প্লেব্যাকের সুযোগ পায়। কিন্তু এখন সিনেমাই তো সেভাবে হচ্ছে না। তারপরও সম্প্রতি চিত্রনির্মাতা রকিবুল আলম রকিবের একটি নাম ঠিক না হওয়া সিনেমার গানে কণ্ঠ দিয়েছি আমি আর প্রতীক হাসান। গানটি বেশ ভালো হয়েছে।নতুন গান

এখনকার অনেক শিল্পী নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য কাজ করছে। কিন্তু আমি এখনো শুরু করিনি। এখন পর্যন্ত বিভিন্ন অডিও কোম্পানির জন্য গান করছি। সম্প্রতি বেশকিছু নতুন মৌলিক গানে কণ্ঠ দিয়েছি। মিউজিক ভিডিও আকারেই প্রকাশ হবে গানগুলো। এরমধ্যে রঙ্গন মিউজিকের ব্যানারে জামাল হোসেনের কথায় তিনটি গান করেছি। একটির মিউজিক কম্পোজিশন করেছেন আহমেদ হুমায়ূন, বাকি দুটিতে মুহিন খান। এছাড়া বেলাল খানের সুর ও সংগীতে একটি বর্ষার গান করেছি। শিল্পীরপরিচয়  শিল্পীর পরিচয় গান গায়কী, আচার-আচরণ, কথাবার্তা, পোশাক পরিচ্ছদে। আমি চেষ্টা করি প্রতিনিয়ত প্রতিটি বিষয়ে নিজেকে আপডেট করতে। লাইভ অনুষ্ঠানে মূলত বোঝা যায়, একজন শিল্পী কতটা সুরে গান করেন। সেদিন একটি টিভিতে আমার লাইভ শো চলাকালে সিনিয়র শিল্পী মিনু বিল্লাহ ফোন করলেন। সবার সামনেই বললেন, তরুণ প্রজন্মের এই একজন শিল্পী যার গান সব সময় সুরে থাকে। এ ধরনের মন্তব্য আমার জন্য অনুপ্রেরণার। করোনাকালেই আমি বিশ্ববিখ্যাত সিগনেচার মোজার্টের ‘সারগাম’ রূপান্তর করে কণ্ঠে তুলে (দুই মিনিট ব্যাপ্তির) ফেইসবুকে পোস্ট করি। তা শুনে শ্রদ্ধেয় রুনা লায়লা খুব প্রশংসা করেন। শুধু তাই নয়, তিনি সেটি ভারতের লতা মঙ্গেশকর, হারিহারানের মতো শিল্পীকে পাঠান। তারাও আমার গায়কীর প্রশংসা করেন। চ্যানেল আই সেরা কণ্ঠ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর এটি ছিল আমার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টার্নিং পয়েন্ট। এরপর থেকে দর্শকরাও আমাকে নিয়ে অন্যভাবে ভাবতে শুরু করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর