,

00-141

বিশ্বকাপে আমরা ভালো করব, মুশফিকুর রহিম

হাওর বার্তা ডেস্কঃ  ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের বড় ভরসা মুশফিকুর রহিম। দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটার তিনি। আসন্ন টি ২০ বিশ্বকাপে ভিন্ন কিছু করে দেখাতে চান অভিজ্ঞ এই কিপার-ব্যাটার। টি ২০ বিশ্বকাপে খেলতে আগামীকাল দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ দল। তার আগে প্রত্যাশার কথা জানালেন মুশফিক- বিশ্বকাপ উপভোগের মঞ্চ না চাপ নিয়ে ব্যাটিং করতে হয়?

আইসিসি টুর্নামেন্ট ও সাধারণ আন্তর্জাতিক ম্যাচের মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য নেই। বাংলাদেশের হয়ে খেলা যে কোনো ম্যাচই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমি সুযোগ পেয়ে গর্বিত। সবার এমন সুযোগ হয় না। চার-পাঁচটা বড় টুর্নামেন্ট খেলার পর সবার প্রত্যাশা বেড়ে যায়। তখন চাপ তৈরি হয়। নিজেকে তৈরি করার চেষ্টা করি। দেওয়ার চেষ্টা করি। বিশ্বকাপে আমি যেন লড়াই করতে পারি শিরোপার জন্য।এ’ দলে খেলে বাড়তি আত্মবিশ্বাস পেয়েছেন?

রান করার চেয়ে ম্যাচে থাকাটাই আমার মূল লক্ষ্য ছিল। ম্যাচের মধ্যে না থাকলে আসল প্রস্তুতি হয় না। সুযোগ কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি। চেয়েছিলাম যেন চাপ থাকে। আমি যেন সেটা ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারি। তেমন সুযোগই পেয়েছি। আমার প্রস্তুতির জন্য সহায়ক হবে। ২০১৬ থেকে এবারের বিশ্বকাপে পার্থক্য কী?

পার্থক্য বলতে দাড়ি একটু বড় হয়েছে … (হা হা), চুল একটু কমে গেছে। ক্রিকেটার হিসাবে একজন যত খেলবে ততই শিখবে। আমিও প্রতিদিন চেষ্টা করি উন্নতি করার। যত উন্নতি করতে পারব বাংলাদেশ দলকে তত দিতে পারব। আমরা ধারাবাহিক ভালো পারফরম্যান্স করছি। এটাই সঠিক ও সেরা সময়। শেষ তিনটি সিরিজ আমরা জিতেছি। এটা আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে। আমি মুখিয়ে আছি। চেষ্টা করব গতবারের তুলনায় এবার আরও বেশি ভালো করার জন্য। কিপিং ছেড়ে নতুন দায়িত্ব (ফিল্ডিং)। কীভাবে দেখছেন?

কম্বিনেশনের কথা বিবেচনা করে আমাকে মানিয়ে নিতে হবে। টিম ম্যানেজমেন্ট আমাকে যেভাবে দেখতে চাইবে আমি সেই ভূমিকায় মানিয়ে নিতে চাই। এখন যদি তারা ব্যাটিংয়ে আমার কাছ থেকে অনেক বেশি কিছু আশা করেন তো আমি সেটাই চেষ্টা করব। ব্যক্তির চেয়ে অবশ্যই দল বড়। ব্যাপারটাকে সেভাবেই নিচ্ছি।বাংলাদেশ কী এবার ডার্ক হর্স?

টি ২০ ক্রিকেটে আগে থেকে কিছু বলা কঠিন। এই ফরম্যাটে নির্দিষ্ট দিনে যারা ভালো খেলবে তারাই জিতবে। প্রথমে কোয়ালিফাই করতে হবে। শেষ তিন-চারটি ম্যাচে বাংলাদেশ যেভাবে খেলেছে, বিশেষ করে টি ২০ ফরম্যাটে, এই আত্মবিশ্বাস যে কোনো বড় টুর্নামেন্টের আগে দরকার। শেষ তিন মাসে যেভাবে পারফর্ম করেছি সেটা যদি বজায় থাকে, তাহলে বিশ্বকাপে আমরা ভালো করব। আশা করব এবার আমরা যেন গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে মূলপর্বে যেতে পারি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর