,

image-115185-1576744320

কুমিল্লা-৭ আসনে উপনির্বাচন আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত হচ্ছে আজ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভা আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবনে অনুষ্ঠিত হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এ তথ্য জানান। জানা গেছে, বৈঠকে কুমিল্লা-৭ আসনের উপ-নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। চান্দিনা উপজেলা নিয়ে গঠিত কুমিল্লা-৭ আসনের টানা তিন মেয়াদসহ পাঁচ বারের এমপি ছিলেন অধ্যাপক আলী আশরাফ। গত ৩০ জুলাই তার মৃত্যুতে শূন্য হয় আসনটি। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে এরই মধ্যে তপশিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তপশিল অনুযায়ী, আগামী ৭ অক্টোবর ভোটগ্রহণ হবে।

কুমিল্লা-৭ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন আট নেতা। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন :প্রয়াত আলী আশরাফের ছেলে ও চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত। এই দুই জনের মধ্যে এক জন মনোনয়ন পেতে পারেন। এ ছাড়া মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন : উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক শাহজালাল মিঞা, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাকির হোসেন, দোল্লাই-নবাবপুর কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মো. জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. সহিদ উল্লাহ ও সদস্য নাজনীন আক্তার।

দলীয় একটি সূত্র জানায়, অধ্যাপক আলী আশরাফের আসনে তার ছেলে মুনতাকিম আশরাফকেই বেছে নিতে পারে দল। আলী আশরাফের জীবদ্দশায়ই রাজনীতির হাল ধরেছেন তার ছেলে মুনতাকিম। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়েও নেতৃত্ব দিয়েছেন। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আজ জানা যাবে।

আরেকটি সূত্র জানায়, এ উপনির্বাচনে স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত চিকিত্সক অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্তের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত চান্দিনার মানুষকে বিনামূল্যে চিকিত্সা দিয়ে আসছেন। তাদের কাছে তার একটি গ্রহণযোগ্যতাও তৈরি হয়েছে। পাশাপাশি তিনি জাতীয়ভাবে একজন খ্যাতনামা চিকিত্সক হিসেবে পরিচিত। তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। অধ্যাপক আলী আশরাফকে বাদ দিয়ে তাকে দেওয়া হয়নি। এখন যেহেতু আলী আশরাফ নেই, তাই তাকেই হয়তো এবার সুযোগ দেওয়া হতে পারে।

 

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর