,

image-456587-1629656742

অ্যাপল ওয়াচ ব্যবহার করে কোটি টাকা লুট

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপলের ওয়াচ ব্যবহার করে বিপদ থেকে উদ্ধার হওয়া এমনকি প্রাণে বাঁচার কথাও অনেক শোনা গেছে। কিন্তু এবার বিপদমুক্ত করার বদলে একই ডিভাইস সর্বনাশের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাপল ওয়াচ ব্যবহার করে একজন নাগরিকের ৫০০০০০ ডলার লুট করার ঘটনা জনসমক্ষে আসে। যদিও ঘটনাটি গত বছরের তবে সেই সময় বিস্তারিত বিবরণ মানুষ জানতে পারেনি। সম্প্রতি ঘটনাটি পুনরায় আলোচনায় উঠে এলে এটি নিয়ে শোরগোল শুরু হয়।

সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ্যাপলের প্রোডাক্ট ব্যবহার করে টাকা লুটপাটের এমন কাণ্ড আগে কখনই ঘটতে দেখা যায়নি।

নিউইয়র্ক পোস্টের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আমেরিকার কানেক্টিকাট প্রদেশে সংঘটিত উপরোক্ত অর্থ ডাকাতির ঘটনায় মোট সাতজন দুষ্কৃতের যোগ ছিল। দীর্ঘক্ষণ ধরে ভুক্তভোগী ব্যক্তিকে অনুসরণের পর দুষ্কৃতরা তার টাকা লুট করে। দুষ্কৃত দল ভুক্তভোগীর গাড়ির বাম্পারের নিচে একটি অ্যাপল ওয়াচ লুকিয়ে রাখে। এর মাধ্যমে তারা আক্রান্তের ঠিকানা ও অবস্থান সংক্রান্ত তথ্য জেনে তার কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়।

ঘটনার বিবরণ থেকে জানা যায়, প্রথমে দুষ্কৃতরা অ্যাপল ওয়াচ কেনার পর সেটিকে নিজস্ব AT & T অ্যাকাউন্টের সাথে লিঙ্ক করে। এরপর তারা ঘড়িটিকে আক্রান্তের গাড়ির বাম্পারে লুকিয়ে রাখে। ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে ঘটনাটি ঘটে, ওই সময় কাউকে ট্র্যাক করার জন্য অ্যাপল ওয়াচ ছিল একমাত্র উপযুক্ত ডিভাইস।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর