,

war-2107281241

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয় এই দিনে, ৫২ মাসে প্রাণ হারায় ২০ মিলিয়ন মানুষ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মানব ইতিহাসের ভয়াবহতম যুদ্ধগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ। সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলোর মধ্যে প্রায় ৫২ মাস ধরে চলা এই যুদ্ধে প্রায় ২০ মিলিয়ন সামরিক ও বেসামরিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। আহত ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আরো অসংখ্য মানুষ। ইউরোপ তথা বিশ্বের মানচিত্র পরিবর্তনকারী এই যুদ্ধে পতন ঘটেছে কয়েকটি সাম্রাজ্যের, সৃষ্টি হয়েছে অনেকগুলো নতুন দেশের।

ভয়াবহ এই যুদ্ধের সূচনা হয় ১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই। প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল মূলত দুই জোটের মধ্যে। একটি হচ্ছে মিত্রশক্তি যেখানে ছিল ব্রিটিশ সাম্রাজ্য, ফরাসি সাম্রাজ্য, রাশিয়ান সাম্রাজ্য এবং অন্যান্য। অন্যটি ছিল কেন্দ্রীয় শক্তি বা অক্ষ শক্তি যেখানে জার্মান সাম্রাজ্য, অটোমান সাম্রাজ্য এবং অস্ট্রো-হাঙ্গেরিয়ান সাম্রাজ্য ছিল।

তবে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িয়ে পড়ে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ। বিপর্যস্ত ও ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয় পৃথিবী। চার বছর ধরে চলা এ যুদ্ধে স্বামী হারিয়ে বিধবা হয় লাখ লাখ নারী। একশ’ বছর আগের এ যুদ্ধের নির্ভরযোগ্য পরিসংখ্যানের ঘাটতি রয়েছে। তাই ক্ষয়ক্ষতির সঠিক হিসাবটা বলা কঠিন।The heroic role played by Indian soldier Maruti Yadav during first world  war dgtl - Anandabazar

১৯১৮ সালের ১১ নভেম্বর পর্যন্ত ৭০টির বেশি দেশ ও জাতি জড়িয়ে পড়ে এ যুদ্ধে। অবশ্য তখন পর্যন্ত স্বাধীনতা লাভ করেনি এসব দেশ। দেশগুলোর বেশিরভাগই ছিল অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়া ও অটোম্যান সাম্রাজ্য-তৎকালীন এই ছয়টি সাম্রাজ্য ও ঔপনিবেশিক শক্তির করায়ত্বে। বেশ কয়েকটি স্বাধীন দেশ যুদ্ধের শুরুতেই যোগ দেয়।

ইতালি ১৯১৫ এবং যুক্তরাষ্ট্র ১৯১৭ সালে যুদ্ধে জড়ায়। যুদ্ধরত দেশগুলোর জনসংখ্যা ছিল ৮০ কোটি যা সেই সময়ে বিশ্বের জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি। দিনে দিনে যুদ্ধ যতই বিস্তৃত হয়েছে, ততই বেড়েছে এর সৈন্য সংখ্যা। শেষ পর্যন্ত এ সংখ্যা দাঁড়ায় সাত কোটিতে। এর মধ্যে ফরাসি সেনা ৮০ লাখ, জার্মান ১ কোটি ৩ লাখ, অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরীয় ৯০ লাখ এবং ইতালীয় ৬০ লাখ। ব্রিটেন পাঠায় ৯০ লাখ সেনা।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের একটি চিত্র। ছবি: সংগৃহীত

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের জন্য কোনো একটি নির্দিষ্ট কারণ কিংবা ঘটনাকে এককভাবে দায়ী করা যায় না। কয়েক দশক ধরে শুরু হওয়া ঘটনাপ্রবাহ যখন একে অপরের সঙ্গে মিলেছে তখন পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গিয়েছিল যে একটি বিশ্বযুদ্ধ অবশ্যম্ভাবী হয়ে ওঠে। উল্লিখিত প্রত্যেকটি কারণ ও ঘটনা একে অপরের সঙ্গে অতপ্রোতভাবে জড়িত। একটি ঘটনা ছাড়া অন্য একটি ঘটনা কল্পনা করা যায় না। একটি কারণ অন্য একটি কারণ কিংবা ঘটনাকে প্রভাবিত করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর