ঢাকা ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতীয় দুর্ভোগের নাম ঢাকার যানজট : মন্ত্রী

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:৩৫:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৫
  • ৩০৯ বার

এখন জাতীয় দুর্ভোগের নাম ঢাকার যানজট বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার রাজধানীর হোটেল লেকশোরে যানজট বিষয়ে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। ওবায়দুল কাদের বলেন, এ দুর্ভোগ কাটাতে গাজীপুর থেকে তেজগাঁও পর্যন্ত সড়ক নিয়ে আরো আধুনিক পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ২২টি ইউলুপ নির্মাণ করা হবে। এসব ইউলুপ যদি জনগণের দুর্ভোগ কিছুটা কমায় তাহলেই ভালো। যানজট নিরসনে গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে হাতিরঝিল পর্যন্ত ৩০ কিলোমিটার সড়ক ট্রাফিক সিগন্যালমুক্ত করবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এ লক্ষ্যে ছোট-বড় মিলিয়ে ৬৯টি ক্রসিং বন্ধ করে ২২টি সড়ক পারপার সেতু বা ইউলুপ নির্মাণ করা হবে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ফুটপাতগুলো পথচারীদের বদলে অন্যরা ব্যবহার করছে। এসবের পেছনে রাজনৈতিক মদদ, পৃষ্ঠপোষকতা আছে। ফুটপাতগুলো পথচারীদের জন্য ছেড়ে দেয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। তবে সমন্বিত পদক্ষেপ ছাড়া যানজট নিরসন সম্ভব নয়। মেয়র আনিসুল হক বলেন, ইউলুপগুলো নির্মাণ করতে ৩৭ দশমিক ০৯ বিঘা জমির প্রয়োজন হবে। এর মধ্যে সড়ক ও জনপথের ৩১ দশমিক ২৫ বিঘা, রেলওয়ের ১ দশমিক ৬১ বিঘা ও সিভিল অ্যাভিয়েশনের ১ দশমিক ৮৩ বিঘা। তবে এসব জমি খালি আছে, অধিগ্রহণের প্রয়োজন হবে না। জমি পাওয়া গেলে ছয় মাসের মধ্যে ইউলুপ নির্মাণ বাস্তবায়ন করা যাবে। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন সাংসদ জাহিদ আহসান রাসেল, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিএম এনামুল হক, ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জাতীয় দুর্ভোগের নাম ঢাকার যানজট : মন্ত্রী

আপডেট টাইম : ১০:৩৫:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৫

এখন জাতীয় দুর্ভোগের নাম ঢাকার যানজট বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার রাজধানীর হোটেল লেকশোরে যানজট বিষয়ে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। ওবায়দুল কাদের বলেন, এ দুর্ভোগ কাটাতে গাজীপুর থেকে তেজগাঁও পর্যন্ত সড়ক নিয়ে আরো আধুনিক পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ২২টি ইউলুপ নির্মাণ করা হবে। এসব ইউলুপ যদি জনগণের দুর্ভোগ কিছুটা কমায় তাহলেই ভালো। যানজট নিরসনে গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে হাতিরঝিল পর্যন্ত ৩০ কিলোমিটার সড়ক ট্রাফিক সিগন্যালমুক্ত করবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এ লক্ষ্যে ছোট-বড় মিলিয়ে ৬৯টি ক্রসিং বন্ধ করে ২২টি সড়ক পারপার সেতু বা ইউলুপ নির্মাণ করা হবে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ফুটপাতগুলো পথচারীদের বদলে অন্যরা ব্যবহার করছে। এসবের পেছনে রাজনৈতিক মদদ, পৃষ্ঠপোষকতা আছে। ফুটপাতগুলো পথচারীদের জন্য ছেড়ে দেয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। তবে সমন্বিত পদক্ষেপ ছাড়া যানজট নিরসন সম্ভব নয়। মেয়র আনিসুল হক বলেন, ইউলুপগুলো নির্মাণ করতে ৩৭ দশমিক ০৯ বিঘা জমির প্রয়োজন হবে। এর মধ্যে সড়ক ও জনপথের ৩১ দশমিক ২৫ বিঘা, রেলওয়ের ১ দশমিক ৬১ বিঘা ও সিভিল অ্যাভিয়েশনের ১ দশমিক ৮৩ বিঘা। তবে এসব জমি খালি আছে, অধিগ্রহণের প্রয়োজন হবে না। জমি পাওয়া গেলে ছয় মাসের মধ্যে ইউলুপ নির্মাণ বাস্তবায়ন করা যাবে। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন সাংসদ জাহিদ আহসান রাসেল, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিএম এনামুল হক, ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা।