ঢাকা ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতপাতের ঊর্ধ্বে উঠতে বিহারের মানুষকে মোদির আহ্বান

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৬:৩৯:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মে ২০১৫
  • ৩৯৯ বার
বিহার বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে রাজ্যের ভোটারদের বার্তা নরেন্দ্র মোদির। বিহারের জনগণকে জাতপাতের হিসাবের উর্ধ্বে ওঠার ডাক দিয়ে সবচেয়ে সৎ যারা, তাদেরই সমর্থনের আবেদন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ শুক্রবার প্রখ্যাত কবি রামধারী সিং দিনকরের সাহিত্য সৃষ্টির সুবর্ণজয়ন্তী বর্ষ উদযাপনের সূচনা করে প্রধানমন্ত্রী এও বলেছেন, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, পূর্ব উত্তরপ্রদেশ ও উত্তর পূর্বের মতো অংশের উন্নয়ন গোটা দেশের সার্বিক বিকাশের ক্ষেত্রে আবশ্যক। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, বিহারের সমৃদ্ধি ও উন্নতির কর্মসূচি এগিয়ে নিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তিনি। বিহারের বিকাশ বাদ দিয়ে ভারতের উন্নয়ন অসম্পূর্ণ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

একদিকে ভারতের পশ্চিম অংশে সমৃদ্ধি, বিকাশ এসেছে আর অন্যদিকে পূর্ব ভারতের আছে প্রজ্ঞা ও জ্ঞান, এই মত জানিয়ে দুই অঞ্চলই দেশের বিকাশে সমান ভাগীদার হতে পারে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

দিনকরের ১৯৬১ সালের একটি চিঠির উল্লেখ করে মোদি বলেন, বিহারকে জাতপাত ব্যবস্থার কথা ভুলে গিয়ে সৎ, নিষ্ঠাবানের পথ অনুসরণ করতে হবে, কবি এটাই বিশ্বাস করতেন। দিনকরের পত্র থেকে তিনি উদ্ধৃতি দেন, একটি বা দুটি জাতের সাহায্য নিয়ে শাসন করা যায় না। জাতপাতের ঊর্ধ্বে উঠতে না পারলে বিহারের সামাজিক উন্নয়ন মার খাবে।

বিহার রাজনীতির পর্যবেক্ষকদের অনুমান, রাজ্যে চলতি বছরের শেষদিকে নির্ধারিত বিধানসভা ভোট মাথায় রেখে বিজেপির প্রতি ভোটারদের আকৃষ্ট করতেই মোদির মুখে জাতপাত প্রত্যাখ্যানের কথা শোনা গেল।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

জাতপাতের ঊর্ধ্বে উঠতে বিহারের মানুষকে মোদির আহ্বান

আপডেট টাইম : ০৬:৩৯:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মে ২০১৫
বিহার বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে রাজ্যের ভোটারদের বার্তা নরেন্দ্র মোদির। বিহারের জনগণকে জাতপাতের হিসাবের উর্ধ্বে ওঠার ডাক দিয়ে সবচেয়ে সৎ যারা, তাদেরই সমর্থনের আবেদন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ শুক্রবার প্রখ্যাত কবি রামধারী সিং দিনকরের সাহিত্য সৃষ্টির সুবর্ণজয়ন্তী বর্ষ উদযাপনের সূচনা করে প্রধানমন্ত্রী এও বলেছেন, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, পূর্ব উত্তরপ্রদেশ ও উত্তর পূর্বের মতো অংশের উন্নয়ন গোটা দেশের সার্বিক বিকাশের ক্ষেত্রে আবশ্যক। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, বিহারের সমৃদ্ধি ও উন্নতির কর্মসূচি এগিয়ে নিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তিনি। বিহারের বিকাশ বাদ দিয়ে ভারতের উন্নয়ন অসম্পূর্ণ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

একদিকে ভারতের পশ্চিম অংশে সমৃদ্ধি, বিকাশ এসেছে আর অন্যদিকে পূর্ব ভারতের আছে প্রজ্ঞা ও জ্ঞান, এই মত জানিয়ে দুই অঞ্চলই দেশের বিকাশে সমান ভাগীদার হতে পারে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

দিনকরের ১৯৬১ সালের একটি চিঠির উল্লেখ করে মোদি বলেন, বিহারকে জাতপাত ব্যবস্থার কথা ভুলে গিয়ে সৎ, নিষ্ঠাবানের পথ অনুসরণ করতে হবে, কবি এটাই বিশ্বাস করতেন। দিনকরের পত্র থেকে তিনি উদ্ধৃতি দেন, একটি বা দুটি জাতের সাহায্য নিয়ে শাসন করা যায় না। জাতপাতের ঊর্ধ্বে উঠতে না পারলে বিহারের সামাজিক উন্নয়ন মার খাবে।

বিহার রাজনীতির পর্যবেক্ষকদের অনুমান, রাজ্যে চলতি বছরের শেষদিকে নির্ধারিত বিধানসভা ভোট মাথায় রেখে বিজেপির প্রতি ভোটারদের আকৃষ্ট করতেই মোদির মুখে জাতপাত প্রত্যাখ্যানের কথা শোনা গেল।