ঢাকা ১১:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আমি মুক্তিযুদ্ধ, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের পক্ষে:ইনু

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৫
  • ৪৬৬ বার

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘নিরপেক্ষতা বলে কিছু নেই। নিরপেক্ষতার কথা বলে মাঝপথে হাঁটার আর সময় নেই।’ নিজে নিরপেক্ষ নন উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের পক্ষে আমি।’
রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে তিন দিনব্যাপী ‘গ্লোবাল ইয়ুথ অন্টারপ্রেনরস সামিট ২০১৫ বাংলাদেশ’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
সামিটে অংশ নেয়া ২৭টি দেশের তরুণ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালে আমাদের মুক্তিযুদ্ধেও দু’টি পক্ষ ছিল। বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। তখন মুষ্টিমেয় ব্যক্তি বাদে আপামর জনতা বাংলাদেশের পক্ষ নিয়েছিল। সে সময় যারা পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে মাতৃভূমির বিরুদ্ধাচার, মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা, মা-বোনদের ধর্ষণ ও হত্যা, বাড়িঘর-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিকাণ্ড ও লুটপাটের মাধ্যমে মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে, শেখ হাসিনার সরকার আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে তাদেরই বিচার করছে। তিনি সত্য ও মিথ্যার পার্থক্য নির্ণয় করে সত্যের পক্ষাবলম্বন করার আহ্বান জানান।
দেশি-বিদেশি তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রত্যেককে অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে বেড়ে ওঠার আহবান জানিয়ে ইনু বলেন, ধর্মের বাছ-বিচার না করে নিজেদের মানুষ হিসেব তৈরি করবেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক চেতনার এক মহান নেতা ছিলেন উল্লেখ করে ইনু বঙ্গবন্ধুর এক উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‘আমি প্রথমে মানুষ, তারপর বাঙালী এবং শেষে মুসলিম।’
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান সবুর খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি হোসেন খালেদ ও নেপালের ‘গ্লোবাল খবর ডট কম’ এর সিইও আশিস ঠাকুর। -বাসস

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

আমি মুক্তিযুদ্ধ, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের পক্ষে:ইনু

আপডেট টাইম : ১০:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৫

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘নিরপেক্ষতা বলে কিছু নেই। নিরপেক্ষতার কথা বলে মাঝপথে হাঁটার আর সময় নেই।’ নিজে নিরপেক্ষ নন উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের পক্ষে আমি।’
রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে তিন দিনব্যাপী ‘গ্লোবাল ইয়ুথ অন্টারপ্রেনরস সামিট ২০১৫ বাংলাদেশ’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
সামিটে অংশ নেয়া ২৭টি দেশের তরুণ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালে আমাদের মুক্তিযুদ্ধেও দু’টি পক্ষ ছিল। বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। তখন মুষ্টিমেয় ব্যক্তি বাদে আপামর জনতা বাংলাদেশের পক্ষ নিয়েছিল। সে সময় যারা পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে মাতৃভূমির বিরুদ্ধাচার, মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা, মা-বোনদের ধর্ষণ ও হত্যা, বাড়িঘর-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিকাণ্ড ও লুটপাটের মাধ্যমে মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে, শেখ হাসিনার সরকার আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে তাদেরই বিচার করছে। তিনি সত্য ও মিথ্যার পার্থক্য নির্ণয় করে সত্যের পক্ষাবলম্বন করার আহ্বান জানান।
দেশি-বিদেশি তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রত্যেককে অসাম্প্রদায়িক চেতনা ধারণ করে বেড়ে ওঠার আহবান জানিয়ে ইনু বলেন, ধর্মের বাছ-বিচার না করে নিজেদের মানুষ হিসেব তৈরি করবেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক চেতনার এক মহান নেতা ছিলেন উল্লেখ করে ইনু বঙ্গবন্ধুর এক উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‘আমি প্রথমে মানুষ, তারপর বাঙালী এবং শেষে মুসলিম।’
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান সবুর খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি হোসেন খালেদ ও নেপালের ‘গ্লোবাল খবর ডট কম’ এর সিইও আশিস ঠাকুর। -বাসস