,

91406_modi

এক বছরে মোদির বিদেশ সফরে খরচ ৩৭ কোটি রুপি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিদেশ সফর খাতে প্রথম বছরেই খরচ হয়েছে ৩৭ কোটি ২২ লাখ রুপি। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া সফর ছিল সবচেয়ে বেশি ব্যয়বহুল। তথ্য অধিকার আইনের অধীনে টাইমস অব ইন্ডিয়া এ তথ্য পেয়েছে। তাতে বলা হয়েছে ২০১৪ সালের জুন থেকে ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত ২০টি দেশ সফর করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে জাপান, শ্রীলংকা, ফ্রান্স ও দক্ষিণ কোরিয়ায় মিশনের কাছে তথ্য চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। তাতে প্রধানমন্ত্রীর সফর সংক্রান্ত তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছিল। সবচেয়ে বেশি খরচ হয়েছে যেসব দেশে তার মধ্যে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ফিজি ও চীন। সবচেয়ে কম খরচ হয়েছে ভুটান সফরে। এর পরিমাণ ৪১ লাখ ৩৩ হাজার রুপি। এ সময়ে অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের থাকা বাবদ হোটেল খরচ হিসেবে পরিশোধ করেছে ৫ কোটি ৬০ লাখ রুপি। গাড়ি ভাড়া বাবদ খরচ করা হয়েছে ২ কোটি ৪০ লাখ রুপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিউ ইয়র্ক সফর করেন গত বছর সেপ্টেম্বরে। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর এসপিজি (স্পেশাল প্রটেকশন গ্রুপ)-এর থাকা বাবদ হোটেল খরচ হয় ৯ লাখ ১৬ হাজার রুপি। প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ও প্রধানমন্ত্রীর অফিসের কর্মকর্তাদের হোটেল খরচ বাবদ খরচ হয ১১ লাখ ৫১ হাজার রুপি। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, নিউ ইংর্কে অবস্থানকালে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীরা ছিলেন নিউ ইয়র্ক প্যালেস হোটেলে। এসপিজি প্রতিনিধিদের গাড়িভাড়া বাবদ খরচ হয় ৩৯ লাখ রুপি। ৩ লাখ রুপি খরচ হয় প্রধানমন্ত্রীর সফর কাভারেজ করার জন্য ‘প্রসার ভারতী’র জন্য। জার্মানিতে ভিভিআইপিদের থাকা বাবদ হোটেল খরচ হিসেবে ৩ লাখ ৮০ হাজার রুপি দিয়েছে দূতাবাস। প্রতিদিেিনর বারাদ্দ ছিল এক লাখ ৩১ হাজার রুপি। স্থানীয় সফরে দেখানো হয়েছে ১৯ হাজার ৪০৫ রুপি। টাইমস অব ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী, চীন সফরে সরকার হোটেলে থাকা বাবদ এক কোটি ৬ লাখ রুপি, যানবাহন ভাড়া বাবদ ৬০ লাখ ৮৮ হাজার রুপি, বিমান সংক্রান্ত ৫ লাখ ৯০ হাজার রুপি ও কর্মকর্তাদের প্রতিদিনের বরাদ্দ ছিল ৯ লাখ ৮০ হাজার রুপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরে খরচ হয়েছে এক কোটি ৩৫ লাখ রুপি। হোটেল ভাড়া খাতে খরচ হয়েছে ১৯ লাখ ৩৫ হাজার রুপি। প্রধানমন্ত্রীর হেয়ারিং ডিভাইস ও ট্রানশ্লেসন ডিভাইস খাতে খরচ হয়েছে ২৮ লাখ ৫৫ হাজার রুপি। ইন্টারনেট চার্জ দেয়া হয়েছে ১৩ লাখ ৮৩ হাজার রুপি। নরেন্দ্র মোদির বিদেশ সফরে এত বেশি খরচ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীরা। তারা তাকে ‘অনুপস্থিত প্রধানমন্ত্রী’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। ক্ষমতার প্রথম বছরে অর্থাৎ ৩৬৫ দিনে নরেন্দ্র মোদি বিদেশে ছিলেন ৫৩ দিন। সফর করেছেন ১৭টি দেশ। তার পূর্বসূরি অর্থাৎ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইউপিএ সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে সফর করেছেন ১২টি দেশ। এক বছরে তিনি বিদেশে কাটিয়েছিলেন ৪৭ দিন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর