,

portugal-preident

সমুদ্রে ঝাঁপ দিয়ে দুই নারীকে বাঁচালেন পর্তুগালের রাষ্ট্রপতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সাগরে সাঁতার কাটার সময় বিপদে পড়েন দুই নারী। সেই দুই নারীকে উদ্ধার করতে সাগরে ঝাঁপ দেন পর্তুগালের ৭১ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো ডি সুজা। কোনো রকম প্রটোকল ছাড়াই সাগরের উপকূলে ঝাঁপিয়ে পড়ে দুই নারীকে রক্ষা করেন তিনি। বিষয়টি আন্তর্জাতিক মহলে বেশ সাড়া ফেলেছে।

জানা গেছে, সাঁতার কাটার সময় বিপদে পড়েন দুই কিশোরী। এসময় তাদেরকে রক্ষা করতে পানিতে নামে উদ্ধারকারী দল। একপর্যায়ে উদ্ধারকারী দলকে সহায়তায় সমুদ্রে নিজেই নেমে পড়েন এ পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট। তারা নিরাপদেই আছে বলে জানা গেছে। প্রেসিডেন্ট রোবেলা নিজেই সাঁতারে দক্ষ হওয়ায় প্রায় সময়ই সমুদ্রের উপকূলে দেখা যায়। তার বাড়ির সাগরের পাশে। এসময় তিনি ছবি তোলাসহ সাধারণ মানুষের সঙ্গে গল্প করতে পছন্দ করেন। প্রেসিডেন্ট বিভিন্ন সময় সচেতনামূলক প্রচারণায় নিজেই রাস্তায় বের হয়ে যান।

ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ডুবন্ত দুই নারীকে উদ্ধারে পানিতে নেমে সাঁতরাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ডি সুজা। অপর এক ব্যক্তিও তাকে সাহায্য করেন। তার সহযোগিতায় দুই নারীসহ কায়াকটি উপকূলে নিয়ে আসা হয়। প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘তখন পশ্চিমের ঢেউগুলো ছিল খুবই বিশাল। ঢেউয়ের তোড়ে তারা ভেসে উল্টে যায়। এছাড়া সেখানে তখন প্রচুর পানি। এমনকি তারা কায়াকটি ঘুরিয়ে ফের উপকূলে আনতে কিংবা এর উপরে উঠতেও পারছিল না। এতটাই গতি ছিল ঢেউয়ের।’ মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘদিন সমুদ্র সৈকতে সাধারণ মানুষের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ছিল। তবে সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে করোনার প্রকোপ কিছুটা কমে আসায় খুলে দেয়া হয়েছে সৈকত। গ্রীষ্মকালীন দাবদাহ থেকে কিছুটা প্রশান্তি পেতে এ সময়ে সাগরের তীরে ভিড় জমান দেশটির সাধারণ মানুষ। অনেকে সাঁতার না জানায় প্রায় সময় দুর্ঘটনা ঘটে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর