,

২০

কঙ্গোতে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টাসহ নিহত ৮

হাওর বার্তা ডেস্কঃ আফ্রিকার দেশ ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে একটি কার্গো বিমান বিধ্বস্ত হয়ে দেশটির প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত কর্মকর্তাসহ ৮ জন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার এ দুর্ঘটনায় বিমানটি থেকে একজন যাত্রীকেও জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

কঙ্গোর প্রেসিডেন্ট ফেলিক্স টিশিসেকেদির কার্যালয় থেকে জানানো হয়, বিমানটিতে ছিলেন প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত গাড়িচালক, আইনবিষয়ক উপদেষ্টা ও কয়েকজন সৈনিক। বৃহস্পতিবার তারা বিমানটিতে করে রাজধানী কিনশাসার উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন।

কঙ্গোর বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে উড্ডয়নের এক ঘন্টা পরই হঠাৎ বিমানটি রাডার থেকে উধাও হয়ে যায়। তারপর মানিয়ামা নামক বনে অবতরণ করতে গিয়ে বিধ্বস্ত হয়। ফেলিক্সের উপদেষ্টা বিদিয়ে টিশিমাঙ্গা জানান, এ দুর্ঘটনায় একজনও বাঁচেনি। সাবাই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

দুর্ঘটনার কারণ এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শুক্রবার সকালে দুর্ঘটনার খবর জানার পর প্রেসিডেন্ট ফেলিক্সের শত শত সমর্থক রাজধানী কিনশাসার রাস্তাগুলো দখল করে প্রতিবাদ জানায়। তারা বলছে, প্রেসিডেন্টকে ব্যর্থ প্রমাণ করার জন্য ষড়যন্ত্র করে এই বিমান দুর্ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, কঙ্গোর দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলাকে সরিয়ে এ বছরই ক্ষমতা দখল করেছেন ফেলিক্স টিশিসেকেদি। তার সমর্থকদের তোলা ষড়যন্ত্রের অভিযোগের ব্যাপারে প্রেসিডেন্টের দফতর থেকে এখন পর্যন্ত কোনো আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়া হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর