ঢাকা ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিল্প খাতেই গ্যাস সরবরাহ করা হবে

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:১৪:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ অক্টোবর ২০১৫
  • ২৮১ বার

বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, লোড শোডিং নামের শব্দটা এখন আর বাংলাদেশে নেই। তবে সাবষ্টেশন ট্রান্সমিশন এবং পাওয়ার গ্রীডে কিছু সমস্যা রয়েছে। আগামী দুই তিন মাসের মধ্যে সাব স্টেশানগুলোর সমস্যার সমাধান হয়ে গেলে নাটোর একটা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ এলাকা হিসেবে পরিচিত হবে। আবাসিক খাতে আমরা কোন গ্যাস সংযোগ দিবো না। এই গ্যাস আবাসিক খাতে সরবরাহ করা মানেই অপচয় করা। শুধুমাত্র পরিকল্পিত শিল্প খাতে এই গ্যাস সরবরাহ করা হবে। তবে আবাসিক এলাকায় এলপিজি (লিকুইড পেট্রোলিয়াম গ্যাস) সংযোগ দেয়া হবে। আরইবি’র (রুরাল ইলেক্ট্রিফিকেশন বোর্ড) মাধ্যমে আগামী ৩ বছরের মধ্যে দেশের ৯০ ভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে। আর ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সমস্ত এলাকায় এই সংযোগ বর্ধিত করা হবে। শনিবার তিনি নাটোর সদর উপজেলার বড়ভিটা এলাকায় ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন রাজলংকা বিদ্যুৎ পেন্ট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,রাজশাহী ৫ (দূর্গাপুর-পুঠিয়া) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুদ ওয়াদুদ দারা, নাটোর সদর আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, জেলা প্রশাসক মশিউর রহমান, পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার মুখার্জী, রাজলংকা পাওয়ার কোম্পানীর কান্ট্রি ম্যানেজার থামাকা থিমবিরিপোলা প্রমুখ। এর আগে তিনি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন এবং নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ ও ২ এর ম্যানেজারদের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। তিনি আগামী প্রজন্মের সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে নিরবচ্ছিন্ন বিদুৎ সরবরাহ নিশ্চিতের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষকে পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

শিল্প খাতেই গ্যাস সরবরাহ করা হবে

আপডেট টাইম : ১০:১৪:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ অক্টোবর ২০১৫

বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, লোড শোডিং নামের শব্দটা এখন আর বাংলাদেশে নেই। তবে সাবষ্টেশন ট্রান্সমিশন এবং পাওয়ার গ্রীডে কিছু সমস্যা রয়েছে। আগামী দুই তিন মাসের মধ্যে সাব স্টেশানগুলোর সমস্যার সমাধান হয়ে গেলে নাটোর একটা নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ এলাকা হিসেবে পরিচিত হবে। আবাসিক খাতে আমরা কোন গ্যাস সংযোগ দিবো না। এই গ্যাস আবাসিক খাতে সরবরাহ করা মানেই অপচয় করা। শুধুমাত্র পরিকল্পিত শিল্প খাতে এই গ্যাস সরবরাহ করা হবে। তবে আবাসিক এলাকায় এলপিজি (লিকুইড পেট্রোলিয়াম গ্যাস) সংযোগ দেয়া হবে। আরইবি’র (রুরাল ইলেক্ট্রিফিকেশন বোর্ড) মাধ্যমে আগামী ৩ বছরের মধ্যে দেশের ৯০ ভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে। আর ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সমস্ত এলাকায় এই সংযোগ বর্ধিত করা হবে। শনিবার তিনি নাটোর সদর উপজেলার বড়ভিটা এলাকায় ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন রাজলংকা বিদ্যুৎ পেন্ট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,রাজশাহী ৫ (দূর্গাপুর-পুঠিয়া) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুদ ওয়াদুদ দারা, নাটোর সদর আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, জেলা প্রশাসক মশিউর রহমান, পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার মুখার্জী, রাজলংকা পাওয়ার কোম্পানীর কান্ট্রি ম্যানেজার থামাকা থিমবিরিপোলা প্রমুখ। এর আগে তিনি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন এবং নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ ও ২ এর ম্যানেজারদের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। তিনি আগামী প্রজন্মের সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে নিরবচ্ছিন্ন বিদুৎ সরবরাহ নিশ্চিতের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষকে পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেন।