ঢাকা ০৯:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে গুলি করে হত্যা

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১২:০২:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
  • ৯ বার

গাজীপুরের শ্রীপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে ফরিদ আহমেদ (২২) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২১ মে) রাত পৌনে ১২টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকবর আলী খান।

এর আগে, একইদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের মাটির মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফরিদ আহমেদ উপজেলার উজিলাব গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে।

ওসি বলেন, ঘটনার পরপরই পুলিশ হত্যার রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনেরা জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের মাটির মসজিদ এলাকার আতাদুল্লাহর তিন ছেলে শাকিব, মারুফ ও মাহফুজ তার চাচাতো ভাই টেপিরবাড়ি গ্রামের মুনসুর আলী ইমরানের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে শাকিব তার চাচাতো ভাই ইমরানকে লক্ষ্য করে গুলি করে। গুলিটি ইমরানের গায়ে না লেগে পাশে থাকা ফরিদ আহমেদের বাম কাঁধের নিচে লাগে। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক নাজমুল হুদা বলেন, রাত ৯টা ১০ মিনিটের দিকে মৃত অবস্থায় ফরিদকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার শরীরে দুটি আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে, গুলিতেই তার মৃত্যু হয়েছে কি না সেটা ময়নাতদন্ত ছাড়া বলা যাবে না।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে গুলি করে হত্যা

আপডেট টাইম : ১২:০২:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

গাজীপুরের শ্রীপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে ফরিদ আহমেদ (২২) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২১ মে) রাত পৌনে ১২টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকবর আলী খান।

এর আগে, একইদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের মাটির মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফরিদ আহমেদ উপজেলার উজিলাব গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে।

ওসি বলেন, ঘটনার পরপরই পুলিশ হত্যার রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনেরা জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের মাটির মসজিদ এলাকার আতাদুল্লাহর তিন ছেলে শাকিব, মারুফ ও মাহফুজ তার চাচাতো ভাই টেপিরবাড়ি গ্রামের মুনসুর আলী ইমরানের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে শাকিব তার চাচাতো ভাই ইমরানকে লক্ষ্য করে গুলি করে। গুলিটি ইমরানের গায়ে না লেগে পাশে থাকা ফরিদ আহমেদের বাম কাঁধের নিচে লাগে। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক নাজমুল হুদা বলেন, রাত ৯টা ১০ মিনিটের দিকে মৃত অবস্থায় ফরিদকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার শরীরে দুটি আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে, গুলিতেই তার মৃত্যু হয়েছে কি না সেটা ময়নাতদন্ত ছাড়া বলা যাবে না।